ডেস্ক: বেশকিছুদিন ধরেই দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খুনের হুমকি দিচ্ছিল কিছু চরমপন্থী সংগঠন। মোদী খুন হতে পারেন বলে আশঙ্কা করে ইতিমধ্যেই রিপোর্ট পেশ করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দপ্তরও। গোয়েন্দা রিপোর্টের সেই আশঙ্কার জেরে এবার বাড়ানো হল দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সিকিউরিটি। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে জারি করা হয়েছে বেশ কিছু বিধি নিষেধও।

প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীর তরফে যে বিধি নিষেধ চালু করা হয়েছে সেখানে বলা হয়েছে, সাধারন মানুষ তো বটেই মোদীর ধারে কাছে ঘেষতে পারবেন না মন্ত্রী আমলারাও। শুধু তাই নয়, নয়া নিয়মের জেরে এখন থেকে রোড শো করতে পারবেন না তিনি। এমনকি, বেশি সভাও করতে পারবেন না তিনি। সুত্র মারফৎ জানা গিয়েছে ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করেছে চরমপন্থী সংগঠনগুলি। মনে করা হচ্ছে, মাওবাদীদের নিশানাতেও রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সুত্র মারফৎ এই খবর পাওয়ার পর তড়িঘড়ি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে মোদীর।

জানা গিয়েছে, দেশের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছিল সেভাবেই হত্যার ছক ক্ষা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে। তাই তাই প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন সহ–কনভয় ও প্রচার মঞ্চের কাছে কাউকে আসতে দেওয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নয়া নিয়মের এই বেড়াজালে এখন থেকে কোনও মন্ত্রী বা আমলাকে প্রধানমন্ত্রীর কাছ অবধি পৌঁছতে গেলে যেতে হবে স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ, ক্লোজ প্রোটেকশন টিম সহ–অন্যান্য বিশেষ নিরাপত্তা বিভাগের সুরক্ষা বলয় পার করে।
খবর পিপাসুদের তৃষ্ণা মেটায়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here