সন্দেশখালির বিডিও’র বাড়িতে সেলিম, দিলেন পাশে থাকার আশ্বাস

0
409
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, রায়গঞ্জ: শুক্রবার দলের এক কর্মসূচীতে যোগ দিতে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে এসেছিলেন জেলায় দলের প্রাক্তন সাংসদ মহম্মদ সেলিম। সেখানেই তিনি জানতে পারেন দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালি-২ ব্লকের যে বিডিও দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে শাসক দলের স্থানীয় নেতাদের রোষের বলি হয়েছিলেন সেই আহত বিডিও কৌশিক ভট্টাচার্য রায়গঞ্জ শহরেই ভাড়া বাড়িতে বাবা-মা আর দুই সন্তানকে নিয়ে থাকেন। সেই তথ্য জানতে পেরেই এদিন প্রাক্তন সাংসদ পৌঁছে যান তার কুশল সংবাদ জানতে। দেখাও করেন তার সঙ্গে। সেখানে থেকে কথা বলেন বেশ কিছুক্ষন।

জানা গিয়েছে, সন্দেশখালি-২ ব্লকের বিডিও কৌশিক ভট্টাচার্য প্রধানমন্ত্রী আবার যোজনার প্রায় ৮০লক্ষ টাকা দুর্নীতি ধরে ফেলেছিলেন। সেই খবর তিনি জেলা প্রশাসনকেও জানিয়েছিলেন। তারপরেই নড়েচড়ে বসে জেলা প্রশাসন। আর সেই ঘটনার জেরে স্থানীয় স্তরে শাসক দলের নেতাদের রোষানলে পড়েন তিনি। এলাকার শাসক দলের পঞ্চায়েত সদস্যদের দ্বারা আক্রান্ত হন তিনি। দীর্ঘদিন এসএসকেএম’এ চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার এসএসকেএম থেকে রায়গঞ্জ ফিরেছেন। এদিন তাকে দেখতে যান রায়গঞ্জের প্রাক্তন সাংসদ মহম্মদ সেলিম। তবে পুরো সুস্থ তিনি এখনও হননি। কারন এখনও তার হাতে আর মাথায় প্রচণ্ড যন্ত্রণা হচ্ছে। তবুও বাড়িতে সাংসদ এসেছেন তা দেখে বিছানা ছেড়ে উঠে বসে কথা বলেন তার সঙ্গে।

kolkata bengali news

এদিন সেলিমকে কৌশিক জানান, ‘গরিবের কয়েক কোটি টাকা আত্মস্যাৎ হয়েছিল। গরিব মানুষের প্রাপ্য ৮০ লক্ষ টাকা উদ্ধার করে প্রকৃত উপভোক্তাদের মধ্যেই ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। দুর্নীতি আটকাতে গিয়ে পঞ্চায়েতে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের রোষানলে পড়েছি। আমার প্রাণনাশের চেষ্টাও হয়েছে সেদিন। ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে পুলিশ স্টেশন, পুলিশের সহায়তা না পেলেও ব্লকের সমস্ত স্তরের কর্মীদের অদম্য সাহস আর আন্তরিকতায় প্রাণে বেঁচে গেছি। মানুষের জন্য প্রশাসন, অন্যায় অনৈতিকতার বিরুদ্ধে বন্দুকের সামনে দাঁড়িয়েও মানুষের জন্য কাজ করে যাওয়ার জন্য আমি প্রস্তুত।’ কৌশিকের এই সাহসীকতাকে এদিন কুর্নিশ জানান প্রাক্তন সাংসদও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here