national news

Highlights

  •  ইজরায়েলী এক সংস্থার কাছে দেশের গোপন তথ্য ফাঁস করার অভিযোগ
  • সাসপেন্ড করা হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশের এক সিনিয়র আইপিএস অফিসারকে
  • যে আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁর নাম এবি ভেঙ্কটেশ্বর রাও

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ইজরায়েলী এক সংস্থার কাছে দেশের গোপন তথ্য ফাঁস করার অভিযোগ উঠল অন্ধ্রপ্রদেশের এই সিনিয়র আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে। এই কারণে ইতিমধ্যেই তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশ পুলিশের এডিজি থাকাকালীন নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে ওই বিদেশী সংস্থাকে গোপন তথ্য পাইয়ে দিয়েছিলেন তিনি বলে অভিযোগ।

যে আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁর নাম এবি ভেঙ্কটেশ্বর রাও। তিনি ১৯৮৯ ব্যাচের আইপিএস অফিসার। শনিবার রাতে অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার তাঁর সাস্পেনশনের নোটিস জারি করে। তাঁকে আপাতত বিজয়ওয়াড়াতে পোস্টিং দেওয়া হয়েছে এবং তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত চলাকালীন বিনা অনুমতিতে তাঁর কোথাও যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, অস্ত্রনির্মাণকারী ইজরায়েলী সংস্থা আরটি ইন্টারন্যাশানালকে অবৈধভাবে টেন্ডার পাশ করানোর দায়িত্ব ছল ভেঙ্কটেশ্বর রাওয়ের ছেলে চেতন সাই কৃষ্ণের সংস্থার ওপর। সেই কারণেই ছেলের সাহায্যের জন্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত বেশ কিছু গোপন তথ্য ওই বিদেশী সংস্থার কাছে পৌঁছে দেন ওই সিনিয়র আইপিএস অফিসার।

অন্যদিকে, ওই সিনিয়র আইপিএস অফিসার আবার অন্ধ্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ছিলেন। গতবছর ৩০ মে জগণমোহন রেড্ডি ক্ষমতায় আসার পর থেকে তাঁকে তাঁর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

যদিও নিজের ওপর ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করে ভেঙ্কটেশ্বর রাও জানান, ‘আমি এই নিয়ে বেশি কিছু ভাবছি না। আমি আইনি পরামর্শ নিচ্ছি। আশা করি সত্যিটা সবার সামনে খুব শীঘ্রই উঠে আসবে।’

ওই আইপিএস অফিসারের পাশে দাঁড়িয়েছে চন্দ্রবাবু নাইডুর দল তেলেগু দেশম পার্টি। তাদের তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতেই ভেঙ্কটেশ্বর রাওকে নিশানা করা হচ্ছে। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, ওই অফিসারের বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ থাকার কারণেই তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here