kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট করোনা টিকা কোভিশিল্ডের প্রতি ডোজ রাজ্য সরকারকে ৪০০ টাকায় বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালকে সেই ডোজ ৬০০ টাকায় বিক্রি করলেও সেরাম কেন্দ্রীয় সরকার তা ১৫০ টাকায় বিক্রি করবে বলে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রের নতুন ভ্যাকসিন নীতি অনুযায়ী প্রস্তুতকারক সংস্থাকে মোট উৎপাদিত টিকার ৫০ শতাংশ কেন্দ্রকে দিতে হবে। এদিকে কেন্দ্রীয় সরকার চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী-সহ সব ধরনের করোনা যোদ্ধাদের বিমার মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী বছরের ২০ এপ্রিল পর্যন্ত তারা ৫০ লক্ষ টাকার বিমার সুবিধা পাবেন বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। গত ২৪ মার্চ এই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়েছিল। এই প্রকল্পে এখনও পর্যন্ত দেশের ২৮৭ জন করোনা যোদ্ধার পরিবার সুবিধা পেয়েছেন।

এদিকে, রাজ্যে আগামী ৫ মে থেকে সার্বিক করোনা টিকাকরণ শুরু হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জানিয়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকার ১ মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকলকে করোনা টিকা নেওয়ার ছাড়পত্র দিয়েছে। কিন্তু এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের কারণে পরিকাঠামো ঘাটতি থাকায় ৫ মে থেকে ওই কর্মসূচি শুরু হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

মালদা থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে এক উচ্চপর্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠকের পর তিনি বলেন, রাজ্যে ইতিমধ্যেই এক কোটি টিকাকরণ সম্পন্ন হয়েছে। আরও এক কোটি ডোজের জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। রাজ্যে অক্সিজেনের কিছুটা ঘাটতি রয়েছে বলে উল্লেখ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্য সরকার এই ঘাটতি পূরণের চেষ্টা করছে। চাহিদা বৃদ্ধির সুযোগে যাতে অক্সিজেন সিলিন্ডারের দাম না বাড়ে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here