বাড়ানো হোক সার্ভিস চার্জ, নাহলে ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি ইম্পার

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সার্ভিস চার্জের দাবিতে সাংবাদিক সন্মেলনে আয়োজন করেন হল মালিক, আর্টিস্ট ফোরাম এবং ফেডারেশন। যদি তাদের দাবিদাওয়া পূরণ না হয় তাহলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিল ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার অ্যাসোসিয়েশন (ইম্পা)। গতকাল সাংবাদিক সন্মেলনের আয়োজন করা হয়। ইম্পার তরফে সাংবাদিক সন্মেলনে সংগঠনের সভাপতি পিয়া সেনগুপ্ত জানান, আমরা ১৮ তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষা করব। এরপর যদি প্রশাসন বা মুখ্যমন্ত্রী সার্ভিস চার্জের দাবিতে কোনও পদক্ষেপ না নেন তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়া হবে।

এই সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আর্টিস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়, সিনে টেকনিশিয়ান ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অপর্ণা ঘটক, অভিনেত্রী পল্লবী চট্টোপাধ্যায়, অভিনেতা শান্তিলাল মুখোপাধায় এবং প্রিয়া সিনেমার কর্ণধার অরিজিৎ দত্ত সহ অনান্য হল মালিকেরা। পিয়া সেনগুপ্ত অভিযোগ করেন, মাল্টিপ্লেক্সগুলো যেভেবা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে তাতে শহরের অনেক প্রেক্ষাগৃহই প্রায় বন্ধের মুখে। ১৯৯৩ সালে তৎকালীন সরকার সিনামের টিকিটের ওপর সার্ভিস চার্জ নেওয়া অনুমতি দেয়। সার্ভিস চার্জের মধ্যে পরে কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি, ২০ শতাংশ বোনাস, ইলেকট্রিকের খরচ, মহার্ঘ ভাতা এবং হল রক্ষণাবেক্ষণের খরচ। কিন্তু এখন কোনও কিছুই হয়ে উঠছে না। জিএসটি চালু হোয়ার পর তা উঠে যায়।এই বিষয় সম্পর্কে সরকারকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি বলে জানান তিনি।

সম্প্রতি বন্ধ হয়ে যায় বেহালার ইলোরা সিনেমা হল। ইলোরার মালিক রতন সাহার বক্তব্য, অনান্য রাজ্যে সার্ভিস চার্জ যেখানে ২০-২৫ টাকা নেওয়া হচ্ছে সেখানে পশ্চিমবঙ্গে শুধু ২-৩ টাকা। তাই সার্ভিস চার্জ বাড়িয়ে আনা হোক ৫-১০ টাকার মধ্যে। এতে দর্শকদের ওপর কোনও প্রভাব পড়বে না। টিকিটের মূল্যবৃদ্ধির কোনও সমস্যাই হবে না। পাশাপাশি এই বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছেন অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আমাদের ইন্ডস্ট্রির অনেক বন্ধুরাই রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু তাঁরা এই বিষয় কিছুই করেননি। বিষয়টিকে একেবারেই গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। এরকম চলতে থাকলে বাংলা চলচ্চিত্র প্রায় শেষ হয়ে যাবে।

অন্যদিকে, পল্লবী চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার এই বিষয়ে পদক্ষেপ নেবে বলে আমার বিশ্বাস। কিন্তু যদি কোনও পদক্ষেপ নেওয়া না হয় তাহলে অনিদিষ্ট ধর্মঘট চলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here