kolkata news
Parul

 

ads

নিজস্ব প্রতিনিধি: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে গোটা দেশের মতো বেসামাল হয়ে যায় পশ্চিমবঙ্গও। তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরপরই ১৫ দিনের জন্য কড়া বিধি-নিষেধ জারি করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর আবার ১৫ দিনের জন্য সেই বিধিনিষেধ বলবৎ রাখা হয়। দুই ধাপ শেষ হওয়ার পর তৃতীয়বারের জন্য কিছুটা ছাড় দিয়ে আবার ১৫ দিনের বিধি-নিষেধ জারি আছে গোটা রাজ্যে। কিন্তু, কড়া বিধিনিষেধ জারি করা হলেও রাজ্য প্রশাসন পূর্ণাঙ্গ লকডাউনের পথে হাঁটেনি।

​এবার স্থানীয় ভাবে পূর্ণাঙ্গ লকডাউনের পথে হাঁটল একটি পুরসভা। উত্তর ২৪ পরগনার ব্যারাকপুর পুর এলাকায় আগামী সাত দিনের জন্য সম্পূর্ণ লকডাউনের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। এই লকডাউন ঘোষণা করেছেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক উত্তম দাস। তিনি জানিয়েছেন, আগামী ২১ জুন থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত চলবে এই এই লকডাউন। লকডাউনের যা কিছু বিধিনিষেধ থাকে, সেইসব বজায় থাকবে আগামী সাত দিন। এলাকায় বেড়ে চলা সংক্রমণে লাগাম টানতে এই পদক্ষেপ বলে জানিয়েছেন তিনি।

​উল্লেখ্য, গোটা পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে সবথেকে বেশি সংক্রমিত হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা। আর এই জেলার মধ্যে ব্যারাকপুর এলাকাতেই সংক্রমণের হার অনেক বেশি। সেই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যই পুর প্রশাসক এই পদক্ষেপ করেছে বলে জানা গিয়েছে। ব্যারাকপুর এলাকায় বেশ কয়েকটি বাজারে অনিয়ন্ত্রিত ভাবে ভিড় হয়ে চলেছে। বিধিনিষেধ থাকলেও তা মানা হচ্ছে না।

​কয়েকদিন আগে এই বিষয়টি নিয়ে জেলাশাসক এবং পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেন পুর প্রশাসক উত্তম দাস। তারপর এই লকডাউনের সিদ্ধান্ত জারি করা হয়। তবে এই লকডাউনে এলাকার লোকজন যাতে কোনও সমস্যায় না পড়েন, তার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ করেছে প্রশাসন। সবজিসহ প্রয়োজনীয় জিনিস ভ্যানে করে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার ভাবনা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here