ডেস্ক: ২০১৮ সালে পৃথিবীর সাতটি সবচেয়ে দূষিত শহরের মধ্যে সাতটিই ভারতে। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় উঠে এল এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। এই তালিকায় সবার উপরে দিল্লি সংলগ্ন গুরুগ্রাম। এছাড়া এই তালিকায় আছে গাজিয়াবাদ, ফরিদাবাদ, নয়ডা, ভিওয়াডি, পটনা ও লখনউ। পাশাপাশি, চিন্তার বিষয় এই যে, এই রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে বায়ুদূষণের ফলে আগামী এক বছরের মধ্যে সাড়া বিশ্ব জুড়ে প্রায় ৭০ লক্ষ মানুষ প্রাণ হারাতে পারেন। আর এর ফলে সারা বিশ্বের অর্থনৈতিক ক্ষতি হতে পারে ২২৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই তালিকায় প্রথম পাঁচে পাকিস্তানের ফৈজলাবাদ শুধুমাত্র আছে।

গ্রিনপিস সাউথইস্ট এশিয়া বলে একটি সংখ্যা এই সমীক্ষাটি চালায় মূলত, বায়ুতে সূক্ষ্ম ধূলিকণা PM2.5 এর উপস্থিতির পরিমাণের উপর ভিত্তি করে। এই ধূলিকণা খুব সহজেই আমাদের ফুসফুস ও রক্তের মধ্যে মিশে যেতে পারে। গ্রিনপিস সাউথইস্ট এশিয়ার সিইও ইয়েব সানো জানান, ‘এই ধরণের দূষণের প্রভাব আমাদের শরীর ও পকেট, দুইয়ের উপরই পড়ে। এর ফলে শুধু যে জীবনহানিই হবে তা নয়, বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতিও হবে।’

অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হারে ভারত এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুততম। কিন্তু এরই মাঝে বিশ্বের ৩০টি সবচেয়ে দুষিত শহরের মধ্যে ২২টিই ভারতের পাঁচটি চিনের, দুটি পাকিস্তানের ও একটি বাংলাদেশের। বিশ্বব্যাঙ্কের রিপোর্ট অনুযায়ী এই দূষণের ফলে একদিকে যেমন ভারতের স্বাস্থ্য খাতে খরচ বাড়ছে, তেমনই উৎপাদনশীলতাও কমছে। এক্ষেত্রে বেশ উল্লেখযোগ্য চিনের ভূমিকা। অর্থনৈতিক উন্নতির পাশাপাশি, দূষণ নিয়ন্ত্রণেও যথেষ্ট দৃঢ় পদক্ষেপ নিয়েছে চিনা সরকার। ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে চিনের দূষণের মাত্রা প্রায় ১২ শতাংশ কমেছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here