Home Latest News আগে প্যান্ডেল সামলা তারপর ভাববি বাংলা: অভিষেক

আগে প্যান্ডেল সামলা তারপর ভাববি বাংলা: অভিষেক

0
আগে প্যান্ডেল সামলা তারপর ভাববি বাংলা: অভিষেক
Parul

ডেস্ক: একুশের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমাবেশে এসে সর্বোপরি অঞ্চল বুথে যারা বুক ভরা আবেগ আর মুষ্ঠিবদ্ধ হাতে নিরলস নির্ভয় ও নির্লোভে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ও তৃণমূল কংগ্রেসের জয়ধ্বনী দিয়ে আজকে আমাদের সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন তাঁদের কুর্নিশ ও নতমস্তকে প্রনাম জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আমরা সকলে উপস্থিত হয়েছি আমাদের নেত্রী মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে দিক নির্দেশিকা এবং নির্দেশাবলী নেব বলে। আমরা সকলেই একুশে জুলায়ের দিনটা একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসাবে উপস্থিত হই। তাঁর কারণ হল এই একুশে জুলাইকে কেন্দ্র করে আমাদের সারা বছর ধরে তৃণমূল কংগ্রেসের কী কর্মসূচী হবে তা জানার জন্য কর্মী সমর্থকরা বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে আমাদের সভানেত্রীর থেকে নীতি নির্দেশিকা নেবে বলে মুখিয়ে থাকে।
একুশের আন্দোলনের পীঠস্থান ধর্মতলার বুকে আমরা একুশে জুলাই প্রতি বছর করি। এবং প্রতি বছর নতুন করে শপথ নিই ন্তুজন করে অঙ্গীকারবদ্ধ হই।

২১ জুলাই মাথায় রাখবেন এটা কোনও শব্দ বা তারিখ নয়, একুশ একটি আন্দোলনের সিমারেখা নয়। একুশ একটি আবেগ একুশ অহংকার, একুশ তৃণমূল কংগ্রেসের পরিচয়। একুশের ইতিহাস যারা জানেন না তাঁদের তৃণমূল কংগ্রেস করার যোগ্যতা নেই। আগের বারের একুশে জুলাইয়ের স্মৃতি স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন , আগের বার শপথ নেওয়া হয়েছিল, তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর ছবি ও জোড়াফুলকে সামনে রেখে এবং রাজ্য সরকারের উন্নয়নের কর্মযঞ্জকে সামনে রেখে আমরা একত্রিত ভাবে লড়ে জেলা পরিষদে জিতব। ফল স্বরূপ পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছে দল। এই বছরের একুশের সভার মূল মন্ত্র হবে ৪২ এ ৪২, ২০১৯ বিজেপি ফিনিশ। এটাই হবে আমাদের এই বছরের অঙ্গীকার। কবির লাইন তুলে বলেছেন, ‘প্রয়োজনে দেব মোরা এক নদী রক্ত হোক না পথের বাধা প্রস্তুর শক্ত,অবিরাম লরাইয়ের চির সংঘর্ষে একদিন সেথা হাত টলবেই সমতার সংগ্রাম চলবেই।’তিনি আরও বলেন তৃণমূল কংগ্রেসকে ভয় দেখিয়ে সিবিআই দেখিয়ে কোনও কাজ হবে না। তৃণমূল কংগ্রেসের লড়াকু নেতারা দলের জন্য জীবন দিতেও প্রস্তুত।

কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রীর মেদিনীপুরের সভায় সামিয়ানা ভেঙে হাসপাতালে একাধিক মানুষ ভর্তি হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে তিনি তাঁর প্রতি সম্মান জানিয়ে বলেছেন, কৃষক সমাবেশে একটি কৃষকেরও দেখা মেলেনি। দশ হাজার লোকের একটা সমাবেশ করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী হিমশিম খেয়েছেন। প্যান্ডেল ভেঙে পড়েছেন। তিনি আরও বলেন। যিনি প্যান্ডেল সামলাতে পারেন না সে কীভাবে দেশ সামলাবেন ? তিনি বলেছেন, ২০১৯ এ প্যান্ডেল ভেঙেছেন ২০১৯ এ সরকার ভাঙবেন প্রধান মন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here