মহানগর ওয়েবডেস্ক: পৃথিবীতে এমন কিছু ঘটনা অনেক সময় ঘটে যায় যার কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা খুঁজে পাওয়া সম্ভব হয় না। কেউই ঠাহর করে উঠতে পারেন না, কেন কীভাবে সেটা হল। কিন্তু হয়ে যায়। সাধারণত আমরা সেগুলোকে মিরাকেল বলে থাকি। করোনা ভাইরাসের বিশ্বজোড়া প্রকোপে সেরকমই কিছু মিরাকেল ঘটে গিয়েছে। ১০৭ বছর বয়সে এসে কোরনাকে পরাস্ত করেছেন স্পেনের বৃদ্ধা আনা ডেল ভেলে। তবে মিরাকেল এটায় নেই, মিরাকেল হল, আজ থেকে ১০২ বছর আগে আসা শেষ মহামারী স্প্যানিশ ফ্লু-কেও শিশু বয়সেই পরাস্ত করেছিলেন তিনি।

স্পেনের ইংরেজি সংবাদপত্র দ্য অলিভ প্রেস সূত্রে বলা হয়েছে, ১৯১৮ সালে পৃথিবীর বুকে আসা স্প্যানিশ ফ্লু-কে হারিয়েছিলেন আনা। তিনিই এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েও সেরে উঠলেন। সম্ভবত আনাই প্রথম মানুষ, যিনি দু-দু’টো মহামারীর কবলে পড়েও সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

করোনা ভাইরাসের ১০২ বছর আগে পৃথিবীর বুকে শেষ অতিমারী হিসেবে হানা দিয়েছিল স্প্যানিশ ফ্লু। ১৯১৮ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ১৯২০ সালের ডিসেম্বর মাস, প্রায় তিন বছর বিশ্ব জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছিল স্প্যানিশ ফ্লু-র কবলে। যা সংক্রামিত করেছিল ৫০ কোটি মানুষকে। যা সেই সময় ছিল বিশ্বের এক তৃতীয়াংশ জনসংখ্যা।

স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, আনা এখন পুরোপুরি করোনা মুক্ত। তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছুটিও দিয়ে দেওয়া রয়েছে। ১৯১৩ সালের অক্টোবর মাসে জন্ম আনার। মাস ছয়েকের মধ্যেই ১০৭-এ পা দেবেন তিনি। কোরনাকে হারিয়ে আনা রেকর্ড বুকেও নাম তুলেছেন। ১০৭ বছর বয়সে করোনাকে পরাস্ত করতে পারা প্রথম মহিলা হয়েছেন তিনি। এর আগে নেদারল্যান্ডসে একই বয়সের আরেক করোনা আক্রান্তও সম্পূর্ণরূপে সেরে উঠেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here