ডেস্ক: শিবসেনা বিজেপির জোটসঙ্গী হলেও দু’দলের সম্পর্ক একেবারে আদায় কাঁচকলায়। তা আরও একবার প্রকাশ্যে এল। বুধবার ফের মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে এক হাত নিলেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধাব ঠাকরে। তাঁর অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের ভুলভাল নীতির জন্যই দেশ জুড়ে ‘কদলী প্রজাতন্ত্র’ চলছে। তিনি ভারতীয় মুদ্রার পতন নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। কটাক্ষ করে বলেন, টাকার বেনজির পতন হচ্ছে, আর সেই হারেই আকাশ ছুঁয়েছে পেট্রোপণ্যের দাম। তবুও নির্বিকার দেশের প্রধানমন্ত্রী। পরিস্থিতি মোকাবিলা করার পরিবর্তে তারা কংগ্রেসের উপর দায় চাপাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে।

উদ্ধাব ঠাকরে বলেন, দেশ জুড়ে চলছে অরাজকতা। রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে চলেছে হু হু করে। প্রধানমন্ত্রী বিদেশভ্রমণে টাকা ওড়াচ্ছে তবুও দেশে কোনও বিনিয়োগ নেই। চাকরির জন্য হাহাকার করছে তরুণ প্রজন্ম। এককথায় যাকে বলে ‘কদলী প্রজাতন্ত্র’। দেশের মানুষকে কাঁচকলা দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রী বিদেশ ভ্রমণ করে বেড়াচ্ছেন। শিবিসেনা প্রধান বিশ্বব্যাঙ্কের একটি রিপোর্ট তুলে ধরে বলেন, মৃত্যু শয্যায় চলে গেছেন ভারতীয় মুদ্রা। এমন পরিস্থিতে ভারতকে বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম অর্থনীতি দাবি করা হাস্যকর।

তবে শরিক দলের এইরূপ বিতর্কিত মন্তব্যের পর গেরুয়া শিবিরের তরফ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি আসন্ন লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখেই মুখ খুলেছেন শিবিসেনা প্রধান। কারণ দুই দলই হিন্দুত্ববাদী। তাই গেরুয়া সরকারের প্রসার রুখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে শিবিসেনা। বিজেপি তার রাজ কায়েম করলে উদ্ধাব ঠাকরের জনপ্রিয়তা ক্রমশ হ্রাস পাবে। তাই সেই ঘটতি পূরণের জন্যই বিজেপি বিরোধীতায় সরব হয়েছে শিবসেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here