bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘নীল-কমল’ ‘লাল কমল’, ‘ব্যাঙ্গমা ব্যাঙ্গমী’ আজ কোথায় তারা। যদি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয় সন্ধান চাই…. তাও কি ফিরে পাওয়া সম্ভব? কিংবা ধরুন কারেন্ট নুন, ছোট লাল কুলের আচার! এসব নিয়ে আজ ইতিহাসের বই লেখা যায়। কারণ সময়ের চক্রে আর ইন্টারনেটের দৌলতে আজ এসব রূপকথার দেশের উপাদান। দু-কামড়ার ঘরে আজ বাবা মা আর এক সন্তানই বরাদ্দ। সেখানে ঠাকুমা-দিদিমার হলুদ লাগা আঁচোলের গন্ধ আজ উধাও। তাঁদের হাত ধরে আর যাওয়া হয়ে ওঠে না রূপকথার দেশে। তাই এখন জীবনের কাঠিন্যই সই। এমন ভাবেই চলছিল দিন। কিন্তু শিকড় ছেড়ে কী থাকা যায়? তাই আরও একবার আবেগ উষ্কে দেওয়ার দ্বায়িত্ব নিলন ‘উইনডোজ প্রোডাকশন’।

১৬ মার্চ থেকে স্টার জলসার পর্দায় আসছে নতুন কুকারি শো ‘রান্নাবান্না’। শুধু রকমারি পদের বাহার দর্শকের সামনে তুলে ধরাই নয়, এখানে নাতি এবং ঠাম্মার এক আদুরে রসায়ণ দেখবেন দর্শকেরা, ঠাকুমার ভূমিকায় থাকছেন তনিমা সেন এবং নাতির ভূমিকায় রক্তিম সামন্ত। পর্দার সামনে অভিনয় যে বাস্তবে জমজমাটি রসায়নে পরিনত হয়েছে , তা বলা বাহুল্য।এমনই সব দৃশ্য সোম থেকে শনি বিকেল ৪ টেয় দেখবেন দর্শক। শো’তে রান্না করতে আসবেন অতিথিরা। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলেব-সকলের জন্য অবারিত দ্বার। শোনা যাচ্ছে ‘হামি’র ‘ভুটু’ অর্থাৎ ব্রত’ও নাকি আসবে তার ঠাকুমাকে সঙ্গে নিয়ে।

নন্দিতা রায় এবং শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের প্রযোজনায় এর আগেও একাধিক নন ফিকশন দেখেছেন দর্শক। আর কুকারি শো ‘বেনু দি’র রান্নাঘর’ তো ছিল দারুণ জনপ্রিয়। সাংবাদিক সম্মেলনে এসে উইন্ডোজ-এর দুই কাণ্ডারিই বলেন নন ফিকশনের প্রতি নিজেদের দুর্বলতার কথা। প্রযোজক হিসেবে দুজনের জার্নিই শুরু হয় নন ফিকশনের হাত ধরে। এবার বেশ অনেকদিন পর আবার পুরনো ভূমিকায় ফিরতে চলেছেন শিবপ্রসাদ এবং নন্দিতা রায়। ফলে, দুজনেই দারুণ খুশি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here