নিয়মকে বুড়ো আঙুল! জাতীয় উদ্যানে সাংসদের বেলাগাম গাড়ি পিষে দিল হরিণকে

0
national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মুম্বইয়ের সঞ্জয় গান্ধী জাতীয় উদ্যানে একটি হরিণকে পিষে দিল শিবসেনার লোকসভার সাংসদ রাজেন্দ্র গাভিটের গাড়ি৷ নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জাতীয় উদ্যানের ভিতরে বেপরোয়া গতিতে ছুটছিল রাজেন্দ্র গাভিটের গাড়ি৷ পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনার সময় গাড়ির স্টিয়ারিং ছিল সাংসদের ড্রাইভার এস জর্জের হাতে। তবে সাংসদ নিজে ওই গাড়িতে উপস্থিত ছিলেন কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়৷ জানা গিয়েছে, গুরুতর আহত অবস্থায় হরিণটিকে উদ্ধার করে পশু চিকিত্সালয়ে পাঠানো হলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়৷

জানা গিয়েছে , ৮৭ বর্গ কিলোমিটারের এই সংরক্ষিত জাতীয় উদ্যানের ভিতরে গাড়ির একটা নির্দিষ্ট গতি ঠিক করা আছে। যে গাড়িই ভিতরে ঢুকবে তার গতিবেগ হতে হবে ঘণ্টায় ২০ কিলোমিটার। বন্যপ্রাণীদের সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন বন দফতরের আধিকারিকরা। তবে সেই নিয়মকে তোয়াক্কা না করেই গাভিটের গাড়ি দ্রুতগতিতে ছুটছিল৷ যার জেরে বেপরোয়া গতির বলি হতে হল একটি হরিণকে৷

জাতীয় উদ্যানের অধিকর্তা তথা মুখ্য বনপাল আনোয়ার আহমেদ জানিয়েছেন, গাড়ির চালক এস জর্জকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা চলছে। জাতীয় উদ্যানের ভিতরে কেন এমন লাগামছাড়া গতিতে গাড়ি ছোটাচ্ছিল সে, তার কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি ওই চালক।

পুলিশ জানিয়েছে, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে (১৯৭২) অভিযুক্ত চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে। প্রসঙ্গত, দেড় বছরে জাতীয় উদ্যানের ভিতরেই এমন গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল আটটি বাঁদরের। সেবারও এই একভাবেই বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাচ্ছিল চালক। সেসময় রাস্তার মাঝেই বসেছিল বাঁদরের দল। দুরন্ত গতি নিয়ে গাড়ি এসে মূহুর্তের মধ্যে পিষে দিয়েছিল তাদের। এদিকে জাতীয় উদ্যানের ভিতরে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর জন্য কর্তৃপক্ষকে বলেছে পুলিশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here