ডেস্ক: দো-টানা ছিল, সরকারকে বাঁচিয়ে রাখতে শরিক সঙ্গি শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরেকে ফোনও করেছিলেন বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। উত্তর এল, ‘টেনশন মত লিজিয়ে’। একই সঙ্গে এনডিএ শরিকরা এও সাফ করে দিল আগামীকাল অনাস্থা প্রস্তাবের বিরুদ্ধেই ভোট দেবেন তাদের ১৮ জন সাংসদ। এই কারণে ইতিমধ্যেই শুক্রবার সকলকে সংসদে উপস্থিত থাকার জন্য হুইপ জারি করে দিয়েছে শিবসেনা।

যদিও বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাবে শিবসেনা কাদের পক্ষ নেবে এই নিয়ে ভ্রান্তি ছিল প্রচুর। যেভাবে প্রতিনিয়ত একের পর এক তোপ উদ্ধব ঠাকরে মোদীর বিরুদ্ধে দাগছিলেন তাতে অনাস্থার পক্ষেই তাদের ভোট যাবে বলে মনে করা হচ্ছিল। যদি সত্যি তাই হতো তবে সরকার পড়ে যাওয়ারও পরিস্থিতি তৈরি হতে পারতো। পরিস্থিতি বুঝে শিবের মাথা ঠাণ্ডা করতে তাতে জল ঢালতে উঠেপড়ে লাগেন অমিত। শরিক সঙ্গি হিসাবে তখনই শিবসেনা আশ্বাস বানী শোনায় তাঁকে।

এরপরই শিবসেনার সাংসদদের হুইপ জারি করে দেওয়া হয়। যার ফলে কার্যত সাফ হয়ে যায় অনাস্থার বিরুদ্ধেই ভোট করবে তারা। অন্যদিকে, আগামীকালের অনাস্থা ভোট থেকে নবীন পট্টনায়কের বিজেডি ও এআইডিএমকে ভোটদানের থেকে বিরত থাকতে পারে। অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় আরেক