মহানগর ওয়েবডেস্ক: শচীন তেন্ডুলকর থেকে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় হয়ে রাহুল দ্রাবিড়, ভিভিএস লক্ষ্মণ ও বীরেন্দ্র শেহওয়াগ সকলেই ব্যাট করার সময় টের পেয়েছিলেন শোয়েব আখতার ঠিক কী জিনিস!

প্রাক্তন কিংবদন্তি পাক স্পিডস্টারের আগুনে গতির অভিজ্ঞতা রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটের মহারথীদের। তালিকায় আছেন এমএস ধোনিও। শুধু ভয়ঙ্কর পেস নয়, রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসের বিমারের মোকাবিলা করেছিলেন দেশের প্রাক্তন জোড়া বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক।

সালটা ২০০৬। পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ভারত। ফয়সালাবাদ টেস্টে আখতারের বোলিংয়ের বিরুদ্ধে দুরন্ত ছন্দে ব্যাট করছিলেন ধোনি। সেঞ্চুরিও পান তিনি। এমনকী আখতারের এক ওভারে তিনটি চারও মারেন মাহি। ধোনিকে একটু অন্যমনস্ক করার জন্য আখতার বিমার দেন। যদিও বলটা অনেকটা দূর দিয়ে বেরিয়ে যায়।
আখতার বলছেন জীবনে ওই প্রথমবার উনি হতাশ হয়ে ইচ্ছাকৃত ভাবে বিমার দেন। আকাশ চোপড়ার সঙ্গে লাইভে আসেন আখতার। সেখানে তিনি বলেন, “আমার মনে হয় ফয়সলাবাদে দ্রুত স্পেল করেছিলাম। ৮-৯ ওভারের। ধোনি সেঞ্চুরি করেছিল। আমি ইচ্ছা করে ধোনিকে বিমার দিয়েছিলাম। পরে ওর থেকে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলাম। জীবনে প্রথমবার আমি ইচ্ছাকৃত বিমার দিয়েছিলাম, আমার করা উচিত হয়নি, এটা নিয়ে পরে অনেক আক্ষেপ করি। আসলে আমি বল করেই যাচ্ছিলাম আর ও মেরেই যাচ্ছিল। মনে হয় হতাশায় বিমার দিয়েছিলাম।”

পাকিস্তানে ২০০৫-০৬ সিরিজে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ধোনির স্মরণীয় অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিন ম্যাচ মিলিয়ে ধোনি ১৭৯ রান করেছিল ৫৯.৬৬-এর গড়ে। এর মধ্যে একটি অসাধারণ ১৪৮ রানের ইনিংস রয়েছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here