একুশে বিরোধী দলেরও তকমা হারাবে তৃণমূল, শোভনকে সঙ্গী করে হুঁশিয়ারি মুকুলের

0

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জল্পনাটা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই, তবে দীর্ঘ সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বুধবার সাড়ম্বরে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিধায়ক তথা প্রাক্তন মহানাগরিক শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাঁর সঙ্গেই মুকুলের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও। দল পরিবর্তনের এই অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিয়ে মুকুল রায় বলেন, বাংলায় আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিরোধী দলের তকমাটাও হারাতে চলেছে তৃণমূল।

Image

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার রাতের বিমানেই দিল্লি উড়ে গিয়েছিলেন শোভন বৈশাখী। কথা ছিল ৪ টে ৩০ নাগাদ দিল্লির বিজেপি দফতরে হবে দল বদল অনুষ্ঠান পর্ব। তবে নির্ধারিত সময়ের ৩০ মিনিট পর ৫ টা নাগাদ শুরু হয় অনুষ্ঠান। শোভন বৈশাখীর পাশাপাশি সেই মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন মুকুল রায়, জয়প্রকাশ মজুমদার, জেপি নাড্ডা ও অরবিন্দ মেননের মতো নেতৃত্বরা। শোভন ও বৈশাখীর গলায় বিজেপির উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়ার পর মুকুল রায় বলেন, বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পিছনে একাধিক নেতার মতোই অনেকখানি হাত রয়েছে কলকাতার প্রাক্তন মহানাগরিক শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। অথচ আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তা অস্বীকার করেন। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, আজ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিজেপি যোগে বাংলার বিজেপি সংগঠন অনেক বেশি শক্তিশালী হল। আমি বলে দিচ্ছি আপনারা লিখে নিন, সামনে যে পৌরসভা নির্বাচন রয়েছে তাতে বিজেপিতো জিতবেই সঙ্গে ২০২১ বিধানসভা নির্বাচন বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জয়লাভ করবে বিজেপি। আর বাংলায় বিরোধী দলের তকমাটাও হারাবে তৃণমূল।

এছাড়া এদিন বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তৃণমূল সম্পর্কে একরাশ ক্ষোভ উগরে দেন শোভন। চেনা তুলে আনেন পঞ্চায়েত নির্বাচনের ইতিবৃত্ত। তাঁর কথায়, আমি যখন তৃণমূলে ছিলাম তখন একটা বিষয় নিয়ে আমি প্রশ্ন তুলেছিলাম কেন পঞ্চায়েত নির্বাচন হতে দিল না দল। কেন এত আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতল দল। কেন বিরোধীদের মনোনয়ন জমা দিতে দেওয়া হল না। এটা গণতন্ত্র বিরোধী। তাই এই অগণতান্ত্রিক দল ছেড়ে আমার বিজেপি যোগ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here