kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: সংযুক্ত মোর্চার ব্যানারে আজ ব্রিগেড সভা হয়েছে। বাম নেতাদের পাশে মঞ্চ ভাগ করে নিয়ে বক্তব্য রাখেন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী ও ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট নেতা আব্বাস সিদ্দিকী। আজকের এই ব্রিগেড সভায় সবার নজর ছিল আব্বাস সিদ্দিকীর দিকে। কারণ, সকাল থেকেই দেখা গিয়েছে তার অনুগামী কর্মী-সমর্থকরা দলে দলে আসতে শুরু করেন ব্রিগেড সমাবেশে। ময়দান ভরাতে আব্বাস সিদ্দিকী অনুগামীদের উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি ছিল। আজকের এই সভায় আব্বাস যে বিশেষ গুরুত্ব পাবেন তা বোঝাই যাচ্ছিল। তিনি মঞ্চে ওঠার পর উপস্থিত কর্মী-সমর্থকরা ‘ভাইজান’ স্লোগানে মুখরিত করে তোলেন ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ড। সেই সময় বক্তব্য রাখছিলেন অধীর চৌধুরী। তীব্র এই কোলাহলে তার বক্তব্য কিছুক্ষণের জন্য থামিয়ে দেন অধীর চৌধুরী। যা নিয়ে সংযুক্ত মোর্চার মধ্যে ফাটল আছে বলে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে বিজেপি-সহ তৃণমূল।

​এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, জোট জিতলে মুখ্যমন্ত্রী হবেন মহম্মদ সেলিম। আর উপমুখ্যমন্ত্রী হবে ন আব্বাস সিদ্দিকী। এবার আপনারাই ভাবুন জোটের অভিমুখ কোন দিকে। বামপন্থী নেতাদের মুখে এখন আর ধর্মনিরপেক্ষতার বুলি আওড়ানো মানায় না। আপনারা বিজেপিতে আসুন। সেখানে একটাই স্লোগান হবে ভারত মাতা কি জয়। অন্যদিকে, বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ করে বলেছেন, ব্রিগেড ভরাতে তৃণমূল লোক দিয়েছে। তবে তৃণমূলের তরফে এই অভিযোগের জবাব দেওয়া হয়নি এখনও।

​আগামী ৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতে ব্রিগেড সভা আছে বিজেপি’র। সেই সমাবেশের কথা উল্লেখ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, বাম-কংগ্রেসের থেকে আমাদের ব্রিগেডে তার চারগুন লোক আনতে হবে। দুই মেদিনীপুর থেকে ২ লক্ষ সমর্থক যাবেন সমাবেশে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here