kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বহরমপুর: সোমবার হরিহরপাড়ায় মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের খানের সমর্থনে আয়োজিত এক নির্বাচনী জনসভায় বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন দলের জেলা পর্যবেক্ষক তথা রাজ্যের পরিবহন ও পরিবেশমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

তিনি বলেন, ‘অধীর এখন যোগী আদিত্যনাথের বন্ধু। এই অধীরই বিজেপিকে প্রার্থী সাপ্লাই দিয়েছে। অধীর চৌধুরীই হুমায়ুনকে বিজেপিতে পাঠিয়েছে। কিন্তু শুনে রাখুন আগামি লোকসভা হবে ত্রিশঙ্কু,আর প্রধানমন্ত্রী হবেন তৃণমূল সুপ্রীমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।’

সোমবার হরিহরপাড়া ব্লক তৃনমুল কংগ্রেসের উদ্যোগে আয়োজিত মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের খানের সমর্থনে নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিবহন ও পরিবেশ মন্ত্রী তথা দলের জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী, প্রার্থী আবু তাহের খান, জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেন, বিধায়ক নিয়ামত সেখ, জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ সামসুজ্জোহা বিশ্বাস, প্রাক্তন সাংসদ মইনুল হাসান, সাগির হোসেন, চাঁদ মহম্মদ প্রমুখ। এদিনের জনসভা থেকে বিজেপি সরকারকে উৎখাত করার সংকল্প গ্রহন করেন দলীয় নেতা কর্মীরা।

সেই সময় শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘কংগ্রেস হল গরুরগাড়ির হেডলাইট আর মোদী জুমলাবাজ প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু চিন্তা করবেন না। অপেক্ষা আর মাত্র কয়েকটা দিনের। তারপরই বাংলা থেকেই ভারতবর্ষ পরিচালিত হবে। মুর্শিদাবাদের তিনটি লোকসভা যদি তৃণমূল কংগ্রেস জেতে তবে বাংলায় বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ হবে। সেই লক্ষেই আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে। মানুষের কাছে গিয়ে ভোট চাইতে হবে। মানুষকে বোঝাতে হবে।’

বস্তুত কংগ্রেসের কাছে এবার রীতিমত চ্যালেঞ্জ জেলায় তাদের দখলে থাকা দুটি লোকসভা আসন ধরে রাখা। তৃণমূল এবার রাজ্যের সব কটি আসনই দখল করার ডাক দিয়েছে। রাজ্যের অন্য কোথাও তাদের বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে না হলেও মুর্শিদাবাদে তাদের গকার কাঁটা হয়ে ঝুলছে অধীর চৌধুরীর উপস্থিতি। ইতিমধ্যেই জেলার সবকটি পুরসভা, জেলা পরিষদ তৃণমূলের দখলে চলে এসেছে। জেলার সিংহভাগ গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এমনকি বিধানসভা কেন্দ্রেও তৃণমূলের দখলে। লোকসভা নির্বাচন সেই প্রেক্ষাপটে কংগ্রেসকে দেওয়া তৃণমূলের শেষ ধাক্কা হতে চলেছে। যদি তৃণমূল জেলার ৩টি আসনই দখল করে তাহলে একসময়কার কংগ্রেস গড় থেকেই ধুয়ে মুছে কার্যত সাফ হয়ে যাবে কংগ্রেস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here