kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছেন তিনি নন্দীগ্রামে প্রার্থী হবেন বলে। তবে এখনও প্রার্থীতালিকা প্রকাশ হয়নি তৃণমূলের। নন্দীগ্রাম বিধানসভা আসনের বিদায় বিধায়ক তথা রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বেশ কিছুদিন হল বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। সেই শুভেন্দু অধিকারী বিধানসভা ভোটে লড়বেন কিনা এবং লড়লে কোন আসন থেকে লড়বেন, সে সম্পর্কে এখনও কিছু জানাননি। তবে ইতিমধ্যে তিনি হুঙ্কার দিয়ে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নন্দীগ্রামে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে হারাবেন বলে।

​এবার শোনা যাচ্ছে, নন্দীগ্রামে বিজেপি প্রার্থী হতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। আর সেই জন্য তিনি জুট কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর গত ৪ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক অস্থায়ী ভাবে জুট কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান পদে বসায় শুভেন্দুকে। যে পদে শুভেন্দু বসেন সেটি ক্যাবিনেট মন্ত্রীর সমতুল মর্যাদার। মেয়াদ ছিল তিন বছর। কিন্তু দু’মাস হতে না হতেই তিনি সেই পদ ছেড়ে দিয়েছেন। আর তাঁর এই পদ ছেড়ে দেওয়া নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছে যে তিনি এবার ভোটে লড়তে চলেছেন।

​তবে এ প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী এখনও নিজে কিছু না বললেও পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেছেন, নির্বাচনের কাজের জন্য চাপ বাড়ায় পদত্যাগ করেছেন শুভেন্দু। আর তার কথাতেই ইঙ্গিত আছে শুভেন্দু ভোটে লড়তে চলেছেন। তবে ভোটে লড়লে তাঁকে নন্দীগ্রামে লড়তে হবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। নন্দীগ্রামের বাইরে অন্য কোনও জায়গায় তিনি ভোটে লড়লে একাধিক মহল থেকে সমালোচনা ধেয়ে আসবে তাঁর দিকে। বলা হবে, মুখ্যমন্ত্রীর মোকাবিলা করতে না চাওয়ায় শুভেন্দু অন্য জায়গায় ভোট লড়ছেন। আর তার থেকে বড় কথা, নন্দীগ্রাম শুভেন্দুর খাসতালুক হিসেবে পরিচিত। তাই মনে করা হচ্ছে, তিনি বিজেপির হয়ে ভোটে লড়লে নন্দীগ্রাম থেকেই লড়বেন। আর সেই জন্যই তিনি কেন্দ্রীয় সরকারি পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here