siddharth shukla

Highlights

  • যারা ভাবছেন আমাকে পরিকল্পনা করে জেতানো হয়েছে তাদের জন্য আমি খুবই দুঃখিত, বললেন শুক্লা
  • হাতে টফ্রি এর থেকে ভাল কিছু আর হতে পারে না
  • সমালচকদের সব প্রশ্নের উত্তর দিতে বাধ্য নই, সিদ্ধার্থ

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘বিগ বস সিজন ১৩’-এর বিজেতা হলেন সিদ্ধার্থ শুক্লা। একদিকে অভিনেতা যেমন প্রশংসা কুড়চ্ছেন, অন্যদিকে, তাঁর শো জেতা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। নেটিজেনদের একাংশ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পনা করেই সিদ্ধার্থ শুক্লাকে জেতানো হয়েছে। এমনকি  চ্যানেল বয়কটেরও ডাক দেওয়া হয়েছে। তবে এই বিষয়ে খুব একটা পাত্তা দিতে নারাজ অভিনেতা। তিনি বলছেন, ‘যারা ভাবছেন আমাকে পরিকল্পনা করে জেতানো হয়েছে তাদের জন্য আমি খুবই দুঃখিত। কেউ যদি পুরো সিজন দেখে থাকে তাহলে বুঝবেন আমার যাত্রাটা কতটা মুশকিল ছিল।’

সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে শুক্লা বলেন, ‘হাতে টফ্রি, এর থেকে ভাল কিছু আর হতে পারে না। দুঃখপ্রকাশ করার কোনও মানেই নেই। মানুষ তখন দুঃখপ্রকাশ করে যখন ভাল কিছু করে না। কিন্তু আমি শো জিততে সফল হয়েছি। তাই আমার দুঃখ করার কোনও কারণ নেই ।’ শো’তে তিনি মহিলা প্রতিযোগীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন এই বিষয়ে সিদ্ধার্থ বলেন, যারা আমায় জানেন তারা বোঝেন আমি কেমন ধরণের মানুষ। খুব সহজেই কারোর বিরুদ্ধে  অভিযোগ করা যেতে পারে। কিন্তু যখন তুমি সেই মানুষটির বিষয়ে জানতে পারো তখন ধারণাটা আরও পরিস্কার হয়ে যায় এবং অভিযোগগুলো মিথ্যে হয়।’

bengali news

সিজন ১৩ বিজয়ী ঘোষণার পরই শো নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। কীভাবে সিদ্ধার্থ শুক্লাকে জেতানো হল তাও নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। সেই বিষয়ে অভিনেতার সোজা জবাব, ‘কেউ যখন বলেন আমাকে পরিকল্পনা করে জেতানো হয়েছে তখন খুব খারাপ লাগে। সেইসব মানুষদের জন্য খুব দুঃখ হয় যাদের এই চিন্তাভাবনা। আমার যাত্রাটা দেখলে বুঝতে পারবেন কতটা মুশকিল ছিল। তবে যারা আমাকে এইসব কথা বলছেন তাদের গুরুত্ব দিচ্ছি না। কারণ সব কথার জবাব দেওয়া যায় না।’

bengali news

উল্লেখ্য নেটিজেনদের অভিযোগ, প্রথম থেকেই চ্যানেল কর্তৃপক্ষ সিদ্ধার্থ শুক্লার পক্ষে কাজকর্ম করছিল। মহিলাদের গালিগালাজ এবং অসম্মান করা সত্ত্বেও তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকি শোয়ের সঞ্চালক সলমানও শুক্লাকে এই নিয়ে কোনও কথা বলেননি। পক্ষপাতিত্ব করে সিদ্ধার্থকে জেতানো হয়েছে বলেও চ্যানেলের তরফে অভিযোগ তুলেছেন নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তারা ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। পাশাপাশি চ্যানেল বয়কটের ডাকও দেওয়া হয়। ট্যুইটারে এখন #boycottcolrostv-ট্রেন্ড চলছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here