ডেস্ক: শরিক দল হলেও বিজেপির প্রতি বরাবরের জন্য ক্ষুব্ধ মহারাষ্ট্রের শিবসেনা। তা সে নরেন্দ্র মোদীর নোট বাতিল ইস্যুই হোক বা কাশ্মীর ইস্যুতে মোদী সরকারের নরম মনোভাব। প্রকাশ্যে মোদী বিরোধী রব তুলেছে শিবসেনা। পরিস্থিতি সামাল দিতে শিব মানভঞ্জনও বহুবার করতে হয়েছে বিজেপির সভাপতি অমিত শাহকে। এরইমাঝে ফের নরেন্দ্র মোদীকে লক্ষ্য করে কামান দাগলেন শিবসেনার সাংসদ সঞ্জয় রাউত। মোদী সরকারের পাকিস্তান নীতির তীব্র বিরোধিতা করে তিনি বলেন মুখ নয়, গুলির ভাষায় জবাব দিতে হবে পাকিস্তানকে।

বিগত কয়েক বছরে ভারতের অন্যতম মাথাব্যাথা জম্মু কাশ্মীর। একের পর এক জঙ্গি হামলা সহ সেখানে নিত্য দিনের সমস্যা পাক জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ ও সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন। জঙ্গি হামলার জেরে ইতিমধ্যেই উপত্যকায় শহিদ হয়েছে বহু সেনা। এহেন পরিস্থিতির মাঝেই লোকসভার আগে মোদী সরকারের পাক নীতির বিরোধিতা করে বিজেপিকে চরম অস্বস্তিতে ফেললেন রাউত। তাঁর কথায়, ‘নির্বাচনের আগে পাক অধিকৃত কাশ্মীর দখল করার কথা বলেছিলেন মোদী। সেই প্রতিশ্রুতি আজও পূরণ হয়নি। ভারতের বিরুদ্ধে হুঙ্কার দিচ্ছেন পাক সেনাপ্রধান। এর জবাব দিতে হবে প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে।’ এর পরই আক্রমণের ধার আরও বাড়িয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের আগে মোদীজি ভাষণ ও প্রতিশ্রুতিতে তালি বাজিয়ে ছিলাম আমরাও। তবে আজ সে হুঙ্কার কোথায় হারিয়ে ফেললেন মোদীজি? পাকিস্তানের কথার জবাব মুখে নয়, গুলিতে দেওয়া উচিৎ মোদী সরকারের।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বুধবারই মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। মোদী সরকারের নীতির সমালোচনা করে তিনি বলেন, এই সরকারের আমলে দেশের হাল খারাপের দিকে এগিয়ে চলেছে। দেশ পরিনত হচ্ছে ‘কদলী প্রজাতন্ত্রে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here