kolkata bengali news

ডেস্ক: ভারতের রাজনীতিতে মহিলাদের আক্রমণ করার একটি ‘ট্রেন্ড’ই রয়েছে। সর্বদল নির্বিশেষে এই আক্রমণ চলতে থাকে। শিক্ষাগত যোগ্যতা, পরিবার, চাকরি, সব ইস্যুতেই খোঁচা খেতে হয়েছে মহিলা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে, প্রিয়ঙ্কা গান্ধী, জয় প্রদা, এমনকি স্মৃতি ইরানি, সকলেই কটাক্ষের শিকার হয়েছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর তো আবার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে বিস্তর প্রশ্ন রয়েছে দেশবাসীর। তবে কৌতূহলের অবসান ঘটালেন তিনি নিজেই। ‘স্বীকার’ করে নিলেন তিনি স্নাতক নন!

এবারের লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের আমেঠি থেকে প্রার্থী হয়েছেন তিনি। তার আগে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় নিজেই জানিয়ে দিলেন যে তিনি স্নাতক নন।

তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতার জায়গায় পরিস্কার উল্লেখ করা রয়েছে, তিনি ‘ব্যাচেলর অফ কমার্স পার্ট-ওয়ান’ পাশ।

স্মৃতি ইরানির জমা দেওয়া হলফনামা-এ উল্লেখ করা হয়েছে, ৩ বছরের ডিগ্রি কোর্স সম্পূর্ণই করেননি তিনি। ১৯৯৩ সালে তিনি হলি চাইল্ড অক্সিলিয়ম স্কুল থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন। তারপর পার্ট ওয়ান পর্যন্তই পড়াশুনা করেন।

আশ্চর্যের বিষয়, ২০০৪ লোকসভার সময়ে স্মৃতি ইরানি দাবি করেছিলেন যে তিনি ১৯৯৬ সালে বিএ পাশ করেছিলেন! পরে গুজরাতের রাজ্যসভায় হলফনামা দেওয়ার সময়ে জানান, তিনি বি কম পাশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here