kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দলের অন্দরে কোন্দল৷ সামাল দিতে নাজেহাল মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ৷ এই কারণে তিনি দেখা করলেন কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে৷ তিনি শনিবার সকালে দিল্লি পৌঁছান৷ সন্ধ্যায় সনিয়ার বাসভবনে যান৷ প্রায় এক ঘণ্টা কংগ্রেস সভানেত্রীর সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে৷ পরে কমল নাথ সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন, আমি সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেছি৷ মধ্যপ্রদেশ দলের ভেতরে বিশৃঙ্খলা নিয়ে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন৷

মধ্যপ্রদেশে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া গোষ্ঠীর সঙ্গে অন্যান্যদের বিরোধ বেধেছে৷ সিন্ধিয়া সমর্থকরা প্রকাশ্যে কমল নাথ ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দিগ্বিজয় সিংয়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন৷ গত ১০ দিনে সনিয়ার সঙ্গে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার বৈঠক করলেন কমল নাথ৷ ৩০ অগস্টের বৈঠকে কমল নাথ ইউপিএ চেয়ারপার্সনকে বলেছিলেন, লোকসভা ভোটের পর রাজ্যে নতুন প্রদেশ কংগ্রেস প্রধানের দরকার ছিল৷ সিন্ধিয়ার সঙ্গে কোনও বিরোধের কথা অস্বীকার করে তিনি বলেন, এটা ভুল যে সিন্ধিয়া রেগে আছেন৷ দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সনিয়া দলের রাজ্য নেতাদের সঙ্গে কথা বলে নতুন প্রধান নির্বাচনের ব্যাপারে মতামত নিচ্ছেন৷ আগামী ১০-১৫ দিনের মধ্যে এব্যাপারে সিদ্ধান্ত হতে পারে৷

দলের অন্দরে কোন্দল প্রকাশ্যে আসার পর একটা গোষ্ঠী সিন্ধিয়াকে প্রদেশ সভাপতি করার দাবিতে সরব হয়েছে৷ এনিয়ে সনিয়া রাজ্য নেতৃত্বের কাছে রিপোর্ট তলব করেছেন৷ তারপর সিন্ধান্ত নেবেন৷ তবে এখনও পর্যন্ত অনেক নেতাই সনিয়াকে চিঠি লিখে সিন্ধিয়াকে প্রদেশ সভাপতি করার দাবি জানিয়েছেন৷ সূত্রের খবর, দিগ্বিজয় এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করছেন৷ মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী হিসেবে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার নাম ঘোরাফেরা করতে থাকে৷ পরে কুর্সিতে বসেন কমল নাথ৷ এর পর বিরোধ চাপা থাকেনি৷ এখন তাঁকে প্রদেশ সভাপতি করার দাবি জোরালো হয়েছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here