sonia bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজেপির বিরুদ্ধে দেশজুড়ে অসন্তোষ বাড়তেই ফের গা ঝাড়া দিয়ে উঠল কংগ্রেস। এদিন দিল্লির রামলীলা ময়দানে কংগ্রেসের ডাকে আয়োজিত হয় ‘ভারত বাঁচাও অভিযান।’ সেখান থেকে নরেন্দ্র মোদী সরকারের ওপর তীক্ষ্ণ আক্রমণ শানান কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী। বলেন, দেশে এই সময় ‘অন্ধেরি নগর, চৌপাট রাজার মতো পরিস্থিতি’। নরেন্দ্র মোদীর ‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ’ স্লোগানের বাস্তবতা কোথায়, সেটা জানতে চান সনিয়া। তাঁর প্রশ্ন, ‘যেই কালো টাকা উদ্ধারের জন্য নোটবন্দি কয়া হয়েছিল, সেটা বেরিয়ে এল না কেন? আপনাদের কি মনে হয় না এই জন্য তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।

নিজের ভাষণে যুব সম্প্রদায়ের চাকরি না থাকার সমস্যা নিয়েও কেন্দ্রকে তোপ দাগেন মমতা। আর্টিকেল ৩৭০ এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে মোদী সরকারকে নিশানায় নিয়ে বলেন, যখন যেই খুশি আইন নিয়ে আসো আর যেটা খুশি সরিয়ে দাও। যখন ইচ্ছে রাষ্ট্রপতি শাসন লাগু হচ্ছে, যখন ইচ্ছে তুলে নেওয়া হচ্ছে এটাই হচ্ছে বর্তমান সরকারের পরিকল্পনা। ‘আলোচনা ছাড়াই যে কোনও বিল আইনে পরিণত করা হচ্ছে। প্রত্যেকদিন নিয়ম করে সংবিধানকে ধ্বংস করা হচ্ছে। ভারতের আত্মাকে বিদীর্ণ করে দেওয়ার মতো নাগরিকত্ব আইন এনেও মোদী-শাহ এমন আচরণ করছেন, যেন ‘কুছ পরয়ো নেহি”। কটাক্ষের সুরে বলতে শোনা যায় কংগ্রেস চেয়ারপার্সনকে।

মূল্যবৃদ্ধি ও নারীসুরক্ষার ইস্যুতেও কেন্দ্রকে এক হাত নেন তিনি। বলেন, ‘আমাদের মা-বোনেদের জীবন এখন যেন সংগ্রাম হয়ে উঠেছে। রোজকার জিনিসের দাম নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছে, যা মধ্যবিত্তের রাতের ঘুম উড়িয়ে দিয়েছে। কেন্দ্র পরোক্ষে বর্বর আচরণ ও অত্যাচার করে যাচ্ছে দেশের জনগণের সঙ্গে। এগুলো দেখে আমার হৃদয় টুকরো-টুকরো হয়ে যাচ্ছে। লজ্জায় মাথা ঝুঁকে যাচ্ছে।’ দিল্লির রামলীলা ময়দানে এদিন সমাবেশে উপস্থিত ছিল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। রাহুল, প্রিয়াঙ্কা, সনিয়া সহ পি চিদম্বরম ও আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here