kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: সোমবার তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার সমর্থণে ভোট প্রচারে এসে বাঁকুড়ার বিজেপি প্রার্থী তথা সৌমিত্র খাঁকে কটাক্ষ করে বিদায়ী সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন ‘ও বালি আর বউ নিয়েই ব্যস্ত৷’ স্বামীর হয়ে প্রচারে বেরিয়ে অভিষেককে সেই কটাক্ষের জবাব দিয়ে পাল্টা ‘হরিদাস’ বন্দ্যোপাধ্যায় বলে কটাক্ষ করেন সৌমিত্রের স্ত্রী সুজাতা৷ বলেন, হরিদাসের বউ সোনা পাচারে ব্যস্ত আর সৌমিত্রের বউ প্রচারে ব্যস্ত৷ এরপরেই ডায়মন্ডহারবার লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আরও একবার হরিদাস বন্দোপাধ্যায় বলে কটাক্ষ করলেন সৌমিত্র খাঁ৷ বললেন,

কিভাবে পিসির ভাইপো হরিদাস বন্দ্যোপাধ্যায় এখনও অবৈধ বালির কারবার চালাচ্ছেন, কিভাবে এখনও অবৈধ কয়লার কারবার চালাচ্ছেন? আর এই অবৈধ বালি ও কয়লা পাচারের ঘটনার প্রতিবাদ করার জন্যই তাঁর বিরুদ্ধে প্রতিশোধ মূলক ব্যবস্থা নিয়ে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। তাকে ৩ মাস ধরে বিষ্ণুপুরে ঢুকতে দেওয়া যাচ্ছে না

বলেও অভিযোগ করলেন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ। বুধবার পূর্ব বর্ধমানের সেহারাবাজারে দলীয় কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করেন তিনি। এরপরই তিনি জানান, যাঁরা ক্রিমিনাল তাঁরা বাইরে জামিন নিয়ে ঘোরাফেরা করছে। আর তাঁকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিষ্ণুপুরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না, প্রচার করতে দেওয়া হচ্ছে না। সাধারণ মানুষ সব কিছুই নজর রাখছে। তাঁরা এই ঘটনায় রীতিমত ক্ষীপ্ত। সৌমিত্রবাবু জানান, তিনি না থাকলেও তাঁর স্ত্রী সুজাতা খাঁ তাঁর হয়েই বিষ্ণপুর চষে বেড়াচ্ছেন। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন দলীয় কর্মীরাও। সাধারণ মানুষ জানিয়েছেন, তাঁরা এই ঘটনার প্রতিবাদ জানাবেন ভোটে।

অন্যদিকে, এদিন গলসি ২ নং ব্লকে তৃণমূলের কংগ্রেসের হয়ে প্রচারে আসেন বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রাথী শ্যামল সাঁতরা। এদিন তিনি গলসির বিভিন্ন জায়গায় রোড শো করেন। বিকালে শিড়রাই মোড় থেকে পাত্রহাটী মোড় প্রযন্ত একটি পদযাত্রা করেন। পদযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন, প্রাথী শ্যামল সাঁতরা, জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধারা, খন্ডঘোষ বিধায়ক নবীন বাগ ব্লক সভাপতি বাসুদেব চৌধুরী প্রমুখ। পদযাত্রা শেষে পাত্রহাটী মোড়ে একটি পথসভাও করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here