kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েই বিস্ফোরক হয়ে উঠলেন তৃণমূল ত্যাগী সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। রবিবার বর্ধমান শহরের উত্সব ময়দানে বিজেপির মহিলা মোর্চার সম্মেলনে যোগ দিতে আসেন তিনি। সম্মেলনে পুরুলিয়া, বীরভূম, বর্ধমান সদর, বর্ধমান পূর্ব, বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর এবং বিজেপির আসানসোল জেলার মহিলা মোর্চার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সৌমিত্রবাবু এদিন নাম না করেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার পরিবারকে আক্রমণ করেন। এমনকি কলকাতা বিমানবন্দরে এক মহিলার সোনা সহ আটক হওয়ার ঘটনাটিকেও টেনে এনে আক্রমণ শানেন তৃণমূল নেত্রীর পরিবারকে লক্ষ্য করে।

এদিন সৌমিত্রবাবু তার বক্তব্য রাখতে গিয়ে জানান, ‘কালিঘাটের ব্যানার্জ্জী পরিবারের সম্পত্তি বাড়ছে। থাইল্যাণ্ড থেকে ২ কিলো সোনা নিয়ে আসছিল ব্যানার্জ্জী পরিবারের লোক। কি করে ৩ হাজার কোটি টাকার মালিক হল? সারদা নারদার টাকায় বড়লোক হয়েছে। রাজ্যে একটা রাক্ষুসী রয়েছে। রাজ্যকে সেই রাক্ষসী মুক্ত করতে হবে। বাংলার মা বোনদের হাতা খুন্তি নিয়ে তৈরী থাকতে হবে যে কোন রকম আক্রমণের প্রতিবাদ করতে। কোন ভাবেই ভয় পেলে চলবে না। আমি পাপ করেছি তৃণমূল করে। এখন পাপের প্রায়শ্চিত্ত করছি। বিজেপিতে যোগ দিয়ে আমি সেটাই করছি।’

 

এদিনের সভা থেকে বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে রীতিমত জেতার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সৌমিত্র খাঁ জানিয়েছেন, আদালতের নির্দেশে তিনি নিজের লোকসভায় ঢুকতে পারছেন না ঠিকই, কিন্তু ২৭ তারিখের পর তিনি আদালতের নির্দেশ মেনেই যখন ঢুকবেন, তখন কোন তৃণমূলের অফিসই থাকবে না, সব বিজেপির অফিস হয়ে যাবে। এদিন সৌমিত্রবাবু বিজেপির মহিলা মোর্চার উদ্দেশ্যে জানান, ‘ক্ষেত্র প্রস্তুত হয়ে গেছে, এখন কেবল দরকার অসুরদের বধ করা। আর সেটা মহিলারাই পারে।’ এদিনের সভা থেকে সৌমিত্রবাবু পোলিং এজেণ্ট হিসাবে মহিলাদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। অন্যান্যদের মধ্যে এদিন এই মহিলা মোর্চার সভায় বক্তব্য রাখেন বিজেপির রাজ্য মহিলা মোর্চার সদস্য শশী সিং সহ অন্যান্য জেলা মহিলা নেতৃত্বরাও। মঞ্চে হাজির ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া আইনুল হক প্রমুখরাও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here