news sports

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে সাফ জানিয়েছেন যে, চলতি বছরের এশিয়া কাপ বাতিল হয়ে গিয়েছে। যা আগামী সেপ্টেম্বরে হওয়ার কথা ছিল।

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট বলেন, “করোনা ভাইরাসের জেরে সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ হচ্ছে না। ডিসেম্বরে পুরো একটা সিরিজ হতে পারে।” এই ঘোষণা শুনে তেলে-বেগুন জ্বলে উঠেছে এশিয়া কাপের আয়োজক দেশ পাকিস্তান।

সৌরভের এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া ডিরেক্টর সামিমুল হাসান সৌরভের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। তিনি বলেন, “সৌরভের কথার কোনও ওজন নেই। উনি প্রতি সপ্তাহে একটা করে মন্তব্য করলেই তার ভিত্তি থাকে না।”

এর সঙ্গে হাসান জুড়ে দিয়েছেন, “এশিয়া কাপ নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) নেবে। একমাত্র এসিসি-র প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান এশিয়া কাপ নিয়ে ঘোষণা করতে পারেন। আমি যতদূর জানি এসিসি-র পরের বৈঠক কবে সেটাই এখনও পর্যন্ত ঠিক হয়নি।”

পিসিবি প্রধান এহসান মানি যদিও সুর নরম করেই এক প্রকার সৌরভের মন্তব্যকে সমর্থন করেছেন। সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলছেন, “এসিসি চেষ্টা করছে পরের বছর এশিয়া কাপ আয়োজন করার। এই বছর আয়োজন করা অত্যন্ত ভয়ানক হতে পারে। আমরা এশিয়া কাপ আয়োজনের দায়িত্ব শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছি। এখানে কোনও রাজনীতির প্রশ্ন নেই, একেবারে ক্রিকেটীয় স্বার্থের কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত আমাদের।”

বর্ষীয়ান প্রশাসক মনির বক্তব্য যে, তারা কোভিড পরিস্থিতি দেখে যা বুঝেছেন তাতে করে সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, পাকিস্তান ও অন্যান্য দক্ষিণ এশিয়ার দেশে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা শ্রেয় নয়। সেক্ষেত্রে শ্রীলঙ্কা অনেক এগিয়ে।

অন্যদিকে পাক সাংবাদিক সাজ সাদিক মানিকে উদ্ধৃত করে লিখেছেন, “আমরা এখনও এসিসি-র পক্ষ থেকে এশিয়া কাপ বাতিলের ব্যাপারে কিছু জানতে পারিনি। আমরা অপেক্ষা করছি। হয়তো সৌরভ কিছু জানেন, সেটা আমি জানি না। তবে এসিসি-র থেকে কিছু শুনিনি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here