kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ২ সপ্তাহের মধ্যেই দল ছাড়তে উদ্যোগী হয়েছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে পেয়েছিলেন বন্ধু শোভন চট্টোপাধ্যায়কেও। অভিযোগ ছিল, তাঁদের অপমান করা হচ্ছে! বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বিবৃতি যে স্বভাবতই বিজেপিকে মারাত্মক অস্বস্তিতে ফেলেছিল তা বলাই বাহুল্য। এই পরিস্থিতিতে হাল ধরেন মুকুল রায়। বৈশাখী-শোভনকে দলছুট হওয়া থেকে আটকাতে তড়িঘড়ি ময়দানে নামেন তিনি। অবশেষে জানা যাচ্ছে দুজনের মানভঞ্জন করাতে পেরেছেন বঙ্গ বিজেপি কাণ্ডারি।

আপাতত দল ছাড়ছেন না শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার রাতে দু’জনের সঙ্গে বৈঠক করেন মুকুল রায়। তাদেরকে হঠকারি সিদ্ধান্ত নিয়ে দল না ছাড়তে অনুরোধ করেন তিনি। বিজেপি সূত্রের খবর, মুকুলের এই ‘পেপটক’ যথেষ্ট কাজ দিয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। এই মুহূর্তে বিজেপি ছাড়ছেন না তাঁরা কেউই। উল্লেখ্য, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সময়ই দেবশ্রী রায়ের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন শোভন। রীতিমতো শর্ত দেন যে, দেবশ্রী যোগ দিলে তিনি থাকবেন না। সেই মতো দেবশ্রী রায়কে সেদিন যোগদান করানো হয়নি বিজেপিতে। পরবর্তী সময় কী হবে তা সময়ই বলবে। ততদিনে শোভন-বৈশাখী নিয়েই চর্চায় রয়েছে বিজেপি।

প্রসঙ্গত, দল ছাড়তে চেয়ে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন যে, তাঁদেরকে অপমান করা হচ্ছে। অনেক কিছু বিষয়ে তাঁকে এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে অন্ধকারে রাখা হচ্ছে। তাই চরম অপমানিত হতে হচ্ছে বিজেপিতে। তিনি বলেন, মিথ্যে কথা বলে তাঁদের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে পুরনো দলের মতোই কাজ করছে বিজেপি। যদি পুরনো দলের চটিতেই পা গলাতে হয় তবে ওই দলেই থাকা ভাল ছিল!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here