FotoJet-13

ডেস্ক: রাজ্যে লোকসভা নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধভাবে পরিচালনা করতে রবিবার শহরে পা রেখেছেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। সোমবার তাঁর সঙ্গে ছিল সর্বদলীয় বৈঠক। সেখানে গিয়ে মুকুল রায় যেভাবে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককে কটাক্ষ করেছেন, তা মোটেও ভালোভাবে নেননি বিবেক। অন্যদিকে বিজেপি যেভাবে রাজ্যের প্রতিটি বুথকে স্পর্শকাতর ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছে, সেই দাবিরও বিরোধিতা করে দুবে।

সোমবার সর্বদলীয় বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক (সিইও) আরিজ আফতাব তৃণমূল কংগ্রেসের লোক বলে তোপ দাগেন মুকুল।

তাঁর অভিযোগ, মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আদতে তৃণমূলের হয়ে কাজ করছেন। এহেন অভিযোগ তুলে আফতাবের সামনে পুলিশ পর্যবেক্ষকের সঙ্গে বৈঠক করতেও অস্বীকার করেন মুকুল রায়। ফলে, বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান আফতাব। শেষ পর্যন্ত তাঁর অনুপস্থিতিতেই বিবেক দুবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মুকুলের নেতৃত্বাধীন বিজেপির প্রতিনিধি দল। মুকুলের এই আচরণ একেবারেই ইতিবাচক ঠেকেনি রাজ্যের বিশেষ পর্যবেক্ষকের কাছে। খোদ বিবেক দুবের সামনেই রাজ্যের সিইও-কে এমন অপমান মানতে পারেননি বিবেক দুবে। মুকুলকে তিনি বলেন, ‘যে অভিযোগ তুলেছেন তার স্বপক্ষে প্রমাণ দিন। কোনও প্রমাণ যদি আমাকে দিতে অসুবিধা হয়, তাহলে প্রমাণ নিয়ে আদালতে যান।’

বিবেক দুবের এমন মন্তব্যে কার্যত চাপে পড়ে যান মুকুল রায়। বস্তুত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছকেই পাল্টা তৃণমূলকে চাপে ফেলতে চেয়েছিলেন তিনি। প্রথমে রাজ্যের পর্যবেক্ষক হিসেবে কেকে শর্মাকে নিয়োগ করা হলেও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা জানান মমতা। এরপর নতুন পর্যবেক্ষক হিসেবে আসেন দুবে।

বৈঠক শেষে বেরিয়ে মুকুল জানান, সব জায়গায় এখনও মোতায়েন নেই কেন্দ্রীয় বাহিনী। হচ্ছে না রুটমার্চও। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পোষাকে দেখা যাচ্ছে পুলিশকে। বিবেক দুবে মুকুলের তোলা অভিযোগ খারিজ করে দিলেও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তার ওপর জোর দেওয়ার কথা বলেছেন।

বৈঠকের আগে দুবে বলেন, অন্য রাজ্যে এক দফায় ভোট হচ্ছে৷ এখানে ৭ দফায় হচ্ছে৷ নিশ্চয়ই এই রাজ্যকে সমস্যাবহুল রাজ্য মনে করছে কমিশন৷ প্রসঙ্গত, রাজ্যে পৌঁছেই বিবেক দুবে জানিয়েছিলেন, পুলিশকে নিজের দায়িত্ব মনে করিয়ে দিতে এবং ভোটারদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে রাজ্যে এসেছেন তিনি। তবে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আফতাবের শাসকদলের হয়ে তাঁবেদারির করার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রের বিশেষ পর্যবেক্ষক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here