ডেস্ক: ভাগাড় কান্ডে রাজ্যজুড়ে আলোড়ন পড়ার পর ঘটনার তদন্তে নেমে বিহার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সানি মালিক নামে এক যুবককে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর অবশেষে গ্রেপ্তার করা হল ভাগাড় কাণ্ডের অন্যতম মাথা বিশ্বনাথ ভড় ওরফে বিশুকে। বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ভাগাড়কাণ্ডের তদন্তকারী দল।

পুলিশ সূত্রের খবর, ভাগাড় কান্ডে মাংস প্রসেসিংয়ের কাজে যুক্ত ছিল অভিযুক্ত বিশু। রাজাবাজার থেকে সম্প্রতি উদ্ধার করা হয় প্রায় ২০ টন ভাগাড়ের মাংস। এরকমই একাধিক বরফ কল চালাত বিশু। আর এর আড়ালেই রমরমিয়ে চলত ভাগাড়ের পচা মাংসের কারবার। ভাগাড়ের পচা মানসে রাসায়নিক মেশানোর পর তা চলে আসত বিশুর কাছে। আর সেখান থেকে নানা হাত ঘুরে তা চলে আসত খাদ্যরসিকদের পাতে।

ভাগাড় কাণ্ডে সানি মালিক গ্রেপ্তার হওয়ার পরেই উঠে আসে বিশুর নাম। ঘটনার পর থেকে তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছিল পুলিশ। এরপর বুধবার গভীর রাতে সোনারপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পেশ করে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হবে বিশুকে। পুলিশের ধারনা শুধু বিশু নয়, তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যাবে ভাগাড় কাণ্ডের অন্যতম চাঁইদের নাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here