kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ভোটের প্রচারে এবার বেশ কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর সেই প্রতিশ্রুতি পালন করতে পদক্ষেপ করল তৃণমূল সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিমতো নেওয়া হচ্ছে একাধিক পদক্ষেপ। রাজ্য সরকার ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পে কৃষকদের অনুদান বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির পৌরহিত্যে আজ নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব গৃহীত হয় বলে জানা গিয়েছে। এই প্রকল্পে ন্যূনতম অনুদান বাড়িয়ে চার হাজার ও সর্বোচ্চ দশ হাজার টাকা করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। উল্লেখ্য, আগে এই প্রকল্পে এক একর জমি আছে এমন কৃষকদের বছরে পাঁচ হাজার টাকা এবং এক একরের কম জমির কৃষকদের বছরে দুই হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হতো। এছাড়াও ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী কৃষকের মৃত্যু হলে তার পরিবারকে এককালীন দুই লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়।

করোনা আবহে গত এক বছরের মধ্যে এই প্রথম নবান্নের ১৩ তলার কনফারেন্স রুমে বসেছিল মন্ত্রিসভার বৈঠক। বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম-সহ ১৫ জন সদস্য। এই সভায় ভার্চুয়ালি যোগ দেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র৷ মুখ্যসচিব পদে দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এইচকে দ্বিবেদী।

এদিন কৃষক প্রকল্পে টাকা বাড়ানোর বিষয়ে অনুমোদন দেওয়ার পাশাপাশি বানতলা লেদার কমপ্লেক্সে ৬টি সংস্থাকে জমি দেওয়ার সিদ্ধান্তেও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে৷ রাজ্যে ৬০০-র বেশি পদে লোক নেওয়ার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে শুক্রবার যে বান আসছে, তা নিয়েও সতর্ক করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ ১১ তারিখের ভরা কোটালের কথা মাথায় রেখে জেলার মন্ত্রীদের নিজ নিজ এলাকায় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here