kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গতকাল বনগাঁ পুরসভা অনাস্থা মামলায় বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসই বয়কট করার ডাক দিয়েছিলেন সরকারি আইনজীবীরা। আদালত খোলার পরই রাজ্যের আইনজীবীর তরফে এক প্রতিনিধি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতিকে জানিয়ে দেন, তারা সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসকে বয়কট করছেন। অভিযোগ ছিল, রাজনৈতিকভাবে প্রভাবিত হয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মন্তব্য করছেন ওই বিচারপতি। সেই বয়কট করার সিদ্ধান্ত আজ প্রত্যাহার করে নেওয়া হল।

সরকারি আইনজীবীদের বক্তব্য, এজলাস বয়কটে সাধারণ মানুষের কাছে ভুল বার্তা যাচ্ছে। সেই কারণেই এই এজলাস বয়কটের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিলেন তারা। প্রসঙ্গত, দিনকয়েক আগেই বনগাঁ মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ই বেনজিরভাবে তিরস্কার করেছিলেন চেয়ারম্যানকে। সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকা সত্ত্বেও কেন তিনি চেয়ার আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন সেই প্রশ্ন তুলেছিলেন তিনি। চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্যকে ভর্ৎসনা করে বলতে শোনা যায়, ‘সংখ্যাগরিষ্ঠতা যখন আপনার সঙ্গে নেই, তখন আপনাকে আস্থা ভোটের মুখোমুখি হতেই হবে৷ ফল ভোগ করতেই হবে৷ এত নির্লজ্জ কেন আপনি? কেন চেয়ার আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন?’

এই মন্তব্যের পরেই বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসই বয়কট করার ডাক দেন সরকারি আইনজীবীরা। বনগাঁ পুরসভায় অনাস্থা মামলার শুনানি শুরুর আগেই রাজ্যের আইনজীবীরা জানিয়ে দেন, তারা সংশ্লিষ্ট বিচারপতির এজলাস বয়কট করছেন। সেই প্রসঙ্গে অবশ্য সমাপ্তির বলেন, ‘আমি যদি ঠিক ভুল নির্বিশেষে সরকারের সব সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত পোষণ করি, তাহলে সেটা অবিচার হবে। সেটা করা আমার পক্ষে সম্ভব না। সরকারি আইনজীবীরা কী ভাবছেন তাতে তাঁর কিচ্ছু আসে যায় না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here