ডেস্ক: বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁকে বাঁকুড়া জেলায় প্রবেশের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। এবার ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষেরও যেন একই ‘হাল’ হয় সেই উদ্যোগই নিল রাজ্য সরকার। ভারতী যেন পশ্চিম মেদিনীপুরে ঢুকতেই না পারেন সেই জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানানো হয়েছে।

আইপিএস থাকাকালীন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর ভালো সম্পর্ক থাকলেও পরবর্তী ক্ষেত্রে তা তিক্ত হয়। পরে ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনে মামলা করে রাজ্য পুলিশ। পুলিশের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত প্রক্রিয়ায় হাত দেয় সিআইডি। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় ভারতী এবং তাঁর স্বামীকেও। ততদিনে তৃণমূলের সংস্পর্শ ছিন্ন করেছেন ভারতী, যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার পরেই ঘাটালে তাঁকে প্রার্থী করে ভারতীয় জনতা পার্টি। এখানেই এবার বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে শাসকদল। সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছে,

ভোট প্রচারে পশ্চিম মেদিনীপুরে যেন না ঢুকতে পারেন ভারতী। রাজ্যের দাবি, জেলায় ঢুকলে তিনি তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারেন।

নিজের প্রচারকেন্দ্রে ঢুকতে না পারা নিয়ে সৌমিত্র খাঁ বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন। এবার তাঁর সঙ্গেই নিজের নাম জড়ালেন ভারতী ঘোষ। লোকসভা নির্বাচনের আর হাতেগোনা দিন বাকি, তার আগেই ভারতীর বিরুদ্ধে রাজ্যের এই পদক্ষেপ বিজেপিকে নিতান্তই চাপে ফেলেছে। আগামীকাল অর্থাৎ শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে এই মামলার শুনানি রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here