kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: হিন্দুত্বের পবিত্রতায় মন্দিরের অভ্যন্তর তো বটেই, জাতীয় রাজনীতি থেকে চিকিৎসা বিজ্ঞান গত কয়েক বছরে গরু এখন ভিভিআইপি। দেশজুড়ে গোমাতাদের রক্ষার্থে মানুষের প্রাণ পর্যন্ত নিতে কসুর করছে না এক শ্রেণীর গেরুয়াধারীরা। যদিও গরুর বিশাল প্রতিপত্তির ভিড়ে কিছুটা ফিকে হলেও একেবারে ফেলনা নয়, মানুষের অতি বিশ্বস্ত প্রিয়জন কুকুরের দল। গো সাম্রাজ্যকে টক্কর দিয়ে নিজেদের মলকে হাতিয়ার করে এবার ঝাণ্ডা তুলে ধরল তারা। সৌজন্যে অষ্টম শ্রেণীর এক পড়ুয়া। নিজের আবিষ্কার তুলে ধরে তার দাবি কুকুরের মল নামিয়ে আনতে পারে নির্মাণ কাজের খরচ।

গরুর গোবর এতকাল পুজা অর্চণা থেকে শুরু করে মানুষের জ্বালানী সমস্ত কাজে অতীব প্রয়োজনীয় দ্রব্য হিসাবে ব্যবহৃত হলেও, মানুষের ঘর পাহারা ও সময় কাটানোর বন্ধু ছাড়া আর কোনও কাজ ছিল না কুকুরের। আর কুকুরের মলের কথা যদি বলেন, তবে এতকাল তা ছিল নাক টিপে পাশ কাটানো পদার্থ। তবে এবার বোধহয় সে চিত্রে বদল আসতে পারে। কারণ ফিলিপিনসের সেকেন্ডারি স্কুলের পড়ুয়ারা করে ফেলেছে এক যুগান্তকারী আবিষ্কার। তাদের দাবি এক মিশ্রণের মাধ্যমে কুকুরের মল থেকে ইট তৈরি সম্ভব। ইতিমধ্যেই ওই পড়ুয়ারা কুকুরের মল জড়ো করে সেটিকে শুকনো করে তার সঙ্গে সিমেন্ট পাওডার মিশিয়ে তৈরি করেছে জৈব ইট। যদিও পরীক্ষামূলক কাজটি এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

কিন্তু পড়ুয়াদের দাবি, পরীক্ষামূলক এই কাজে সরকারের সাহায্য আসলে খুলে যেতে পারে নয়া দিগন্ত। এই জৈব ইটে ১০ গ্রাম কুকুরের মলের সঙ্গে মেশানো হয়েছে ১০ গ্রাম সিমেন্ট পাওডার। কিছু দিন রাখার পর এই মিশ্রণে কোনও দুর্গন্ধও থাকে না। ছোট কোনও নির্মাণের ক্ষেত্রে এই ইট ভীষণ ভাবেই উপযোগী বলে দাবি খুদে বিজ্ঞানীদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here