নিজস্ব প্রতিবেদক, বারাসাত: শিশুদের ওপর যৌন নির্যাতন দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। সামাজিক ব্যাধিতে দাড়িয়ে গেছে এই ঘটনা। এবারের ঘটনাস্থল উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসত সদর মহকুমার অশোকনগর থানার পুমলিয়া মাঠপারা এলাকা। ছাত্রীর মা নার্গিস খাতুন জানান, শনিবার দুপুরে তিনি বাড়িতে ছিলেন না। সেই সময় তার এগারো বছরের মেয়েকে অভিযুক্ত প্রতিবেশী রফিকুল ইসলাম (৩৮) তার নিজের বাড়িতে ডাকে টুকটাক কাজের জন্য। ঘরে কেউ না থাকার সুযোগে সে ওই ছাত্রীর উপর পাশবিক অত্যাচার করার চেষ্টা করে। সে ওই নাবালিকাকে কামড়েও দেয় বলে জানা গেছে।

নাবালিকা ওই ছাত্রী ঘটনার জেরে চিৎকার করলে সেই সময় তার হাতে একশো টাকা দিয়ে রফিকুল বলে কারুর কাছে এই ঘটনার কথা বললে সে তাকে মেরে ফেলবে। নির্যাতিতা ছাত্রী বাড়িতে চলে এসে তার দিদির কাছে এবং প্রতিবেশীদের কাছে ঘটনার কথা জানালে অভিযুক্ত এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। শনিবার ঘটনার পরই অভিযুক্ত রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতন এবং পকসো আইনে মামলা রুজু করে পুলিশ। পরে শনিবার গভীর রাতে অশোকনগর ইশ্বরীগাছা এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম ঘটনার কথা অস্বীকার করে জানায়, তার বিরদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে। ধৃতকে আজ বারাসাত আদালতে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে অশোকনগর থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here