নিজস্ব প্রতিবেদক, চন্দননগর: হুগলি জেলার চন্দননগর মহকুমার পলতাঘাট জেটি গত এপ্রিল মাস থেকে বন্ধ থাকার জন্য ছাত্রছাত্রী ও সাধারণ মানুষের চরম সমস্যা তৈরি হয়েছে। ওপারে যেতে হচ্ছে ঘুর পথে। তাই পলতাঘাট খোলার দাবিতে চাঁপদানিতে জিটি রোড অবরোধ করলো ছাত্রছাত্রী ও সাধারণ মানুষ। অবরোধকারীদের মধ্যে বেশিরভাগই স্কুল পড়ুয়া। তারা প্রায় সকলেই ব্যারাকপুর কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় ও ইছাপুর কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী। তাদের বক্তব্য, বিগত কয়েক মাস ধরে পলতাঘাট বন্ধ থাকায় ভোররাতে তাদেরকে ঘুম থেকে উঠে কয়েক কিলোমিটার দূরে অন্য ঘাট থেকে বিদ্যালয়ে পৌঁছতে হয়। বারবার প্রশাসনকে জানানো হলেও কোন কাজ না হওয়ায় এদিন তারা বাধ্য হয়ে পথ অবরোধে সামিল হয়েছে।

শুক্রবার সকাল সওয়া ৯টা নাগাদ তারা জিটি রোডে পলতা মোড় অবরোধ করে। পলতাঘাট খোলার দাবীতে পোস্টার হাতে পড়ুয়ারা রাস্তায় বসে পরে। অবরোধের জেরে সারি সারি গাড়ি রাস্তায় দাঁড়িয়ে যায়। পড়ুয়াদের পাশে এসে অবরোধে সামিল হয় সাধারন যাত্রীরাও। ভদ্রেশ্বর থানার আইসি ঘটনাস্থলে গিয়ে এ বিষয়ে মহকুমা শাসকের সঙ্গে তাদেরকে বসিয়ে আলোচনা আশ্বাস দিলে প্রায় দু’ঘন্টা পর অবরোধ ওঠে। অন্যদিকে অবরোধকারীদের দাবীকে সমর্থন জানান চাঁপদানী পুরসভার পুরপ্রধান সুরেশ মিশ্রও। তিনি বলেন পাকা জেটি করানোর নামে গত ২৬শে এপ্রিল এই ঘাট জেলাশাসকের নির্দেশে বন্ধ করা হয়। কিন্তু তারপর থেকে কোন কাজই শুরু হয়নি। আমি নিজে আট থেকে দশবার %A