নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: ১লা এপ্রিল থেকে পরীক্ষা। হাতে আর মাত্র ১০দিন। তার মধ্যেই জমা দিতে হবে সাড়ে ১২ হাজার টাকা। এত দ্রুত এই টাকা কিভাবে জমা দেওয়া যাবে সেটা ভেবেই মাথায় হাত পড়েছে পড়ুয়াদের। আর তার জেরেই বিক্ষোভের ঝড় আছড়ে পড়ল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজবাটি ক্যাম্পাসে।
বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ বিভিন্ন কলেজের বিবিএ, বিসিএ এবং বায়োটেকের তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষার সূচি ঘোষণার ১০ দিনের মধ্যে পরীক্ষা নেবার সিদ্ধান্তের জেরে ছাত্রছাত্রীদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ল সোমবার দুপুর থেকে। এদিন বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন কলেজের এই সমস্ত প্রভিশনাল কোর্সের ছাত্রছাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, আগামী ১ এপ্রিল থেকে এই পরীক্ষা নেবার দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে। মাত্র ১০দিন আগে এই নোটিশ দেওয়ায় চরম সমস্যার মুখে পড়েছেন অসংখ্য ছাত্রছাত্রীরা।

ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ, দোলের ছুটির ঠিক আগে এই নোটিশ দেবার পর ২দিন ছুটি ছিল। ফলে ছাত্রছাত্রীদের ফর্ম ফিলাপ নিয়ে চরম জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। শুধু তাইই নয়, উচ্চশিক্ষা পেতে ইচ্ছুক অনেক দুঃস্থ গরীব ছাত্রছাত্রী এই ঘোষণায় ফর্ম ফিলাপের জন্য প্রায় সাড়ে বারো হাজার টাকা জোগাড় করতেও সমস্যায় পড়ে গিয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ, মাঝখানের এই কয়েকদিনে সবকিছু ঠিকঠাকভাবে ফর্মফিলাপের প্রক্রিয়া চললেও পরীক্ষার অ্যাডমিট পেতে সমস্যায় পড়বেন ছাত্রছাত্রীরা।

 

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের জেরেই এদিন বিবিএ, বিসিএ এবং বায়োটেকের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রছাত্রীরা বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজবাটি ক্যাম্পাসে উপাচার্যের ঘরের সামনে বিক্ষোভও দেখায়। তাদের দাবী অবিলম্বে এই পরীক্ষা ন্যূনতম ১৫দিন পিছিয়ে দিতে হবে। এ ব্যাপারে এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার তোফাজ্জল হোসেন জানিয়েছেন, ছাত্রছাত্রীদের দাবি যুক্তিসঙ্গত। গোটা বিষয়টি নিয়ে উপাচার্য্যের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তবে এরই মধ্যে ছাত্রীদের তরফে অভিযোগ তোলা হয় যে বিক্ষোভে থাকা মেয়েদের ওপর হামলা চালায় বিশ্ববিদ্যালয়েরই মহিলা কর্মীরা। ছাত্রীদের টানাহেঁচড়া করে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি তাদের চেয়ার ছুঁড়েও মারা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here