নিজস্ব প্রতিবেদক, কৃষ্ণনগর: চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই ঘুরে গেল ঘটনার মোড়। একদিন আগেই যারা ছিলেন অভিযুক্ত এখন তাদের মুক্তির দাবিতেই থানা ঘিরে বিক্ষোভ দেখালো ওই স্কুলেরই পড়ুয়ারা। ঘটনাস্থল নদিয়া জেলার কৃষ্ণগঞ্জ থানা এলাকা। অভিযোগ, মঙ্গলবার কৃষ্ণগঞ্জ খাটুরা উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন সময়ে স্কুলের দুই শিক্ষক বিশ্বজিৎ দাস ও পৃথ্বীরাজ বিশ্বাস নবম ও দশম শ্রেণীর দুই ছাত্রীর সঙ্গে অশ্লীল আচরণ করেন। ঘটনার জেরে ওই ছাত্রীরা বিষয়টি তাদের বাড়ির লোককে জানালে ছাত্রীর অভিভাবকরা আরও বেশ কয়েকজনকে জুটিয়ে স্কুলে এসে প্রায় ঘন্টা চারেক শিক্ষকদের আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখান। ঘটনার খবর যায় কৃষ্ণগঞ্জ থানায়।কৃষ্ণগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই শিক্ষকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। পরে তাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাদের গ্রেফতারও করে।

বুধবার সেই দুই শিক্ষকের মুক্তির দাবিতে কৃষ্ণগঞ্জ থানায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখালো কৃষ্ণগঞ্জ খাটুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা। এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক অপূর্ব বিশ্বাস বলেন,’আমি ছাত্রী ও অভিভাবকদের মুখে ঘটনাটি শুনেছি। আমি বলেছিলাম বিষয়টি আলাপ আলোচনার মাধ্যমে মিটিয়ে নিতে। এরপর দেখলাম পুলিশ এসে দুই শিক্ষককে নিয়ে গেছে।’ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কৃষ্ণগঞ্জ থানার পুলিশ। এদিন স্কুল পড়ুয়া যারা থানা ঘেরাও করে তাদের দাবি, রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে ওই দুই শিক্ষকের নামে দুই ছাত্রীকে দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করা হয়। তাই তাদের দুইজনের মুক্তির দাবিতে তারা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here