নিসর্গ নির্যাস: অমিত শাহ কে প্রণাম করে বিজেপির মঞ্চে অভিষেক হলো শুভেন্দুর। প্রথম থেকেই তিনি আক্রমনাত্মক ছিলেন। শুভেন্দু বলেন, ‘২১ বছর ধরে যেই দল করেছি সেই দল খোঁজ নেয়নি। অমিত শাহ বড় ভাইয়ের মতো। তিনিই খোঁজ নিয়েছিলেন দু’বার’।

 

তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় দেশাত্মবোধক পার্টি বিজেপি। নরেন্দ্র মোদির হাত শক্ত করতে হবে। আরও বলেন, ‘আমি আগে ভারতীয় তারপরে বাঙালি।’

 

এদিন শুভেন্দু বলেন, খবরদারি করতে নাম লেখাইনি দলে। দরকার হলে বুথে বুথে গেরুয়া পতাকা লাগাব। আরও বলেন, তোলাবাজ ভাইপো হঠাও। ‘রাজনীতি করার জন্য সিড়ি দিয়ে উঠে আসতে হয়েছে’।

 

তৃণমূলকে নিশানা করে বলেন, তোলাবাজদের সরকারকে বাংলা ছাড়া করতে হবে। বাংলার অধিকার কোনও দলের একার নয়। তারপরেই তিনি বলেন, ‘মুকুল বলেছিলেন যদি আত্মসম্মানে রাখতে চাস তবে বিজেপিতে আয়’।

 

তৃণমূলকে এক হাতে নিয়ে শুভেন্দু বলেন, ওরা এখন বিশ্বাসঘাতক বলছে। ভালোবাসা না পেলে ঘর থেকে বেরোনোর ক্ষমতা ছিল? এনডিএ সরকারে কে ছিল সেই প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন শুভেন্দু।

 

তৃণমূল সুপ্রিমোর নাম না করে বলেন, মা আবার কে! আমার মা একটাই গায়ত্রী অধিকারী। মা বলতে হলে ভারতমাতাকে বলবো। হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘এবারে তৃণমূল দ্বিতীয় হবে। প্রথম হবে বিজেপি’।

 

সভার পরেই কনভয়ে অমিত শাহের গাড়ির পেছনে কৈলাস বিজয়বর্গীয়-র সঙ্গে এক গাড়িতে মেদিনীপুর থেকে রওনা দেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here