Home Featured ঘোর অশান্তি বিজেপি’র ঘরে, মালব্যকে বরখাস্ত করার সময়সীমা বেঁধে দিলেন স্বামী

ঘোর অশান্তি বিজেপি’র ঘরে, মালব্যকে বরখাস্ত করার সময়সীমা বেঁধে দিলেন স্বামী

0
ঘোর অশান্তি বিজেপি’র ঘরে, মালব্যকে বরখাস্ত করার সময়সীমা বেঁধে দিলেন স্বামী
Parul

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজেপি’র রাজ্যসভার সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী দলের আইটি সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাকে বরখাস্ত করার সময়সীমা বেঁধে দিলেন। একটি টুইট করে দলকে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, যদি বৃহষ্পতিবার অর্থাৎ আগামীকালের মধ্যে অমিত মালব্যকে বরখাস্ত করা না হয় তাহলে তিনি ধরে নেবেন যে দল তাকে সমর্থন করছে না। বিজেপি’র সভাপতি জেপি নাড্ডাকে দেওয়া দলের আইটি সেলের নেতাকে বরখাস্ত করার প্রস্তাবটি তিনি ‘সমঝোতা’ সূত্র হিসেবেই দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বামী।

রাজ্যসভার সাংসদের বিরুদ্ধে দলেরই আইটি সেল ভুয়ো টুইট ছড়াচ্ছে এই অভিযোগে দু’দিন আগেই বিজেপি নেতা প্রকাশ্যেই তার ক্ষোভের কথা জানিয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে ঠিক কী ধরনের প্রচার আইটি সেল থেকে চালানো হচ্ছে সে বিষয়ে কিছু স্পষ্ট করে না বললেও তিনি অভিযোগ করেন অমিত মালব্যের নেতৃত্বে ‘’বেলাগাম নোংরামি’’ চলছে। বিজেপি’র আইটি সেল দুর্বৃত্তে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন স্বামী। তখনই তিনি আইটি সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা অমিত মালব্যের বরখাস্ত দাবি করেন।

দলে এমন কোনও জায়গা নেই যেখানে তিনি দলীয় কর্মীদের মতামত চাইতে পারেন জানিয়ে সুব্রহ্মণ্যম স্বামী জানান, এই অবস্থায় তিনি নিজেই আত্মপক্ষ সমর্থন করতে বাধ্য হবেন। ক্ষুব্ধ বর্ষীয়ান নেতা এদিন টুইট করে বলেছেন, ‘’আগামীকালের মধ্যে যদি মালব্যকে আইটি সেল থেকে সরিয়ে না দেওয়া হয় (যা আমি নাড্ডাকে সমঝোতা প্রস্তাব হিসেবে দিয়েছিলাম) তাহলে ধরে নেব, দল আমাকে সমর্থন করবে না। যেহেতু দলে এমন কোনও ফোরাম নেই যেখানে দলীয় সদস্যদের অভিমত পাওয়া যায়, তাই আমি নিজেই আত্মপক্ষ সমর্থন করতে বাধ্য হব।‘’

বিগত কিছুদিন ধরেই রাজ্যসভার সাংসদ এবং সরকারের পারস্পরিক সম্পর্কের মধ্যে একটা টানাপোড়েন লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সরকারের একাধিক সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে চলেছেন স্বামী। বহু বিরোধিতা, বিতর্ক ও সমালোচনার মধ্যেও মোদী সরকার ‘জেইই’ ও ‘নিট’ পরীক্ষা শুরু করেছে। কিন্তু দলকে কিছুটা অস্বস্তিতে ফেলেই  সুব্রহ্মণ্যম স্বামী বিরোধীদের সুরেই পরীক্ষা মুলতুবি রাখার পক্ষে সওয়াল করেছেন। গত ফেব্রুয়ারি মাসেও সরকারের জিএসটি চালু করা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে অর্থনীতিবিদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী তাকে ‘’একবিংশ শতকের বৃহত্তম পাগলামি’’ বলে চিহ্নিত করেছিলেন।

সংবাদ মাধ্যমের তরফে অমিত মালব্যর প্রতিক্রিয়া জানার চেষ্টা করা হলে আইটি সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here