নিজস্ব প্রতিবেদক, ঘাটাল: পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ঘিরে শাসকদলের হিংসা বা খাতা খতিয়ান নিয়ে খোলা মঞ্চে শাসকদলকে যতই তোপ ছুঁড়ুক বিরোধীরা, ত্রিস্তরীয় নির্বাচনে শাসকদলের প্রচারের হাতিয়ার কিন্তু উঠে এসেছে একেবারে নথিপত্র সহ। আর সেই অস্ত্র নিয়েই বিরোধীদের কাবু করতে মাঠে নেমে পড়ল শাসক দল। শনিবার ঘাটাল, চন্দ্রকোনা ও চন্দ্রকোনা রোডে তিনটি নির্বাচনী সভায় যোগ দিয়ে একেবারে খাতায় কলমে তৃণমূল সরকারের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

শাসক দলের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকার তথা রাজ্যের বিরোধীদের প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার ছিল রাজ্য কোনও উন্নয়ন হয়নি। রাজ্যে প্রচারে এসে সেই কথাই বারে বারে বলে বেড়িয়েছিলেন অমিত শাহ থেকে বিরোধী নেতারা। তবে ভোটের আগেই বিরোধীদের মুখের মতো জবাব দেওয়ার অস্ত্র পেয়েছে শাসক দল। সেই খতিয়ান তুলে ধরে সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘পঞ্চায়েতে আমরাই দেশের সেরা। কেন্দ্রীয় সরকার বা বিরোধীরা যাই বলুক আমরা কাজ করে দেখাই। কথা বেশি বলি না।’ তাঁর কথায়, ‘এরাজ্য যে পঞ্চায়েতের কাজে দেশের সেরা, তার স্বীকৃতি বিজেপির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারই দিয়েছে। আর ওদের নানান মাপের নেতারা বলে বেড়াচ্ছে এই রাজ্যের পঞ্চায়েতে নাকি কোনও কাজ হয়নি, কোনও উন্নয়ন হয়নি। তাহলে এমনি এমনিই সেরার স্বীকৃতি দিয়ে দিল কেন্দ্র!’

শুধু উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরা নয়, আগামী দিনে যে আরও উন্নয়ন রাজ্যবাসীর জন্য অপেক্ষা করে আছে তাঁর ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, ‘ঘাটাল, দাসপুরে পানীয় জলের জন্য একটা বড় প্রকল্প তৈরি করা হবে। যাতে উপকৃত হবেন বহু মানুষ।’ একইসঙ্গে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘বাড়ি বাড়ি যান, রাজ্য সরকারের উন্নয়ণের কথা মানুষকে বলে আসুন। দেখবেন দু’হাত তুলে আশির্বাদ করবেন।’ উল্লেখ্য, বীরভূম, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, সহ একাধিক জেলা সারা দেশের মধ্যে পঞ্চায়েতে সেরার শিরোপা পেয়েছে কেন্দ্রের হাত থেকে। রাজ্য উন্নয়নের সঙ্গিন দশা বলে বিরোধীরা যতই গলা ফাটাক না কেন, ভোট পূর্বে কেন্দ্রের এ পুরষ্কার যে শাসক দলকে কত বড় মাইলেজ দিয়েছে তার প্রমাণ বারে বারে মিলছে তৃণমূলের ভোট প্রচারের সভামঞ্চে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here