নিজস্ব প্রতিবেসদক, কাটোয়া: স্কুলের বাথরুমে গিয়ে রিভলবার দিয়ে মাথায় গুলি করে আত্মঘাতী হল এক স্কুল ছাত্র। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া মহকুমার কেতুগ্রামের দধিয়াবর্গিতলা হাইস্কুলে। মঙ্গলবার সকালের এই ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে স্কুলে এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। ঘটনায় মৃত ছাত্রের নাম কলিম সেখ।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে স্কুল শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই আচমকা গুলির আওয়াজ পান ছাত্র থেকে শিক্ষক সকলেই। স্কুলের মধ্যে গুলির আওয়াজে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। সেই সময় স্কুলের বাথরুমে গিয়ে দেখা যায়, কলিম নিজেই নিজের মাথায় রিভলবার দিয়ে গুলি করে আত্মঘাতী হয়েছে। এরপরই খবর দেওয়া হয় কেতুগ্রাম থানায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান কেতুগ্রাম থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর ওই ছাত্র নিজেই রিভলবার কপালে ঠেকিয়ে গুলি করে। কিন্তু ওই ছাত্রের কাছে কিভাবে রিভলবার এল তা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। অন্যদিকে স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ছাত্রের সঙ্গে এক ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ওই ছাত্রীটি অপর একটি ছাত্রকেও ভালবাসত। তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। সম্ভবত প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়েই এই ধরণের পদক্ষেপ নেয় কলিম।

কিন্তু দশম শ্রেণীর কালিমের কাছে কিভাবে এবং কোন পথে আগ্নেয়াস্ত্র এল, তা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। পুলিশ মৃত ছাত্রের পরিবারের লোকজনের সঙ্গেও কথা বলছে। বাড়ির কারও কাছে এই রিভলবার ছিল কিনা তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here