national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্রত্যক্ষ না হলেও পরোক্ষভাবে দেশে ফের একটি প্রাণ কেড়ে নিল নোভেল করোনাভাইরাস। শুধু আতঙ্কেই এবার আত্মহত্যা করে জীবন গেল এক ব্যক্তির। ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানী দিল্লিতে। জানা গিয়েছে, দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছিলেন এক ব্যক্তি, সন্দেহ করা হচ্ছিল তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। এই আশঙ্কাতেই আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই রোগী।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, পরীক্ষা তখনও হয়নি ওই ব্যক্তির। শুধুমাত্র লক্ষ্যণ থাকায় তাঁকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু করোনা হয়েছে এই আতঙ্কেই দিশেহারা হয়ে ওই ব্যক্তি আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তির কিছু ক্ষণের মধ্যেই আটতলার জানলা দিয়ে নিচে ঝাঁপ দেন বলে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে করোনাভাইরাস ভারতে মৃত্যু হয়েছে তিনজনের, তারা কর্ণাটক, দিল্লি এবং মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা। করোনাভাইরাস রুখতে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে সব রাজ্যের সরকার। পরিস্কার, পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি জোর দেওয়া হয়েছে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের ওপর, অর্থাৎ কাছাকাছি বেশি না থাকার ওপর। এর বাইরেও প্রচুর পদক্ষেপ নেওয়ার আছে।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই সচেতনতা বাড়াতে এবং অত্যন্ত সংক্রামক করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমাতে সাধারণ মানুষের থেকে বিভিন্ন পরামর্শ চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই এক নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্রকল্পের সূচনা করেছেন তিনি। সেই প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের জনসাধারণের কাছ থেকে করোনার সংক্রমণ কমাতে প্রযুক্তি নির্ভর অভিনব আইডিয়া চেয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

এহেন পরিস্থিতিতে আজ, ১৯ মার্চ সন্ধ্যা ৮টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতকালই করোনা মোকাবিলা করতে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন তিনি। করোনা মোকাবিলায় ভারতীয় প্রশাসনের আর কী কী করণীয়, সেটাই ঠিক হয় ওই বৈঠকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here