যা হয়েছে তা অন্যায়, বাবুল হেনস্থায় বাম ছাত্রদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন সুজন

0
1754
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এবিভিপির নবীন বরণকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে দফায় দফায় যা যা ঘটনা ঘটাল বাম ছাত্র সংগঠন তাতে যারপরনাই রুষ্ট সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। বাবুল সুপ্রিয় ও অগ্নিমিত্রা পলকে ঘিরে ছাত্র বিক্ষোভ ও হেনস্থার ঘটনায় ছাত্রদের পাশে না থেকে বাবুলদের পাশে দাঁড়ালেন তিনি। স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, এমন আচরণ কোনওভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়।

বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এবিভিপির অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে বাম সমর্থিত ছাত্রদের হাতে রীতিমতো হেনস্থার স্বীকার হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতে এদিন বাম ছাত্র সংগঠনের বিরুদ্ধে মুখ খুলে সুজনবাবু বলেন, ‘ছাত্ররা ওদের ঘিরে কালো পতাকা দেখাতে পারতেন। প্রতিবাদের একটা ধরন আছে। গায়ে হাত তোলাকে কোনওভাবেই সমর্থন করি না। এই ধরণের আচরণ কোনওভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়।’ পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘যাদবপুর দখল করতে দিলীপবাবুরা যখন গিয়েছিলেন, তখন ছাত্ররা তা প্রতিহত করেছিল। সেই স্পিরিট সমর্থনযোগ্য। কাউকে গায়ে হাত দিয়ে হেনস্থা করলে তাঁকেই সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়। এটা কখনই উচিত কাজ হয়নি।

উল্লেখ্য, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্য সংগঠনগুলিকে বাদ দিয়ে একা একা এবিভিপির এই নবীন বরণকে নিয়ে চাপা ক্ষোভ ছিল আগে থেকেই। ফলে এদিন সেই অনুষ্ঠানে যখন বাবুল সুপ্রিয় ও অগ্নিমিত্রা পলদের মতো বিজেপি নেতৃত্ব যোগদেন ক্ষোভ বাড়ে আরও। প্রথমে কালো পতাকা দেখিয়ে চলে বিক্ষোভ। পরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেঙে হামলা চালানো হয় বাবুলের উপর। তাঁকে ধাক্কা দেওয়ার পাশাপাশি, চুল টেনে ধরা হয়। ধাক্কাধাক্কিতে পরে যান বাবুল। ছিড়ে যায় জামার কলার। ছাত্র বিক্ষোভের জেরে একটি ঘরে তাঁরা আটকে রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here