রাহুল সিনহা একটি আকাট, অভিজিৎকে নিয়ে কুমন্তব্যের পাল্টা দিলেন সুজন

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজ্য বিজেপির সিনিয়র নেতা হওয়ার সুবাধে মাঝে মধ্যে একটু আধটু বিতর্ক চড়ানো মনহতব্য করে বসেন গেরুয়া নেতা রাহুল সিনহা। তবে বহুদিন মুখবন্ধ রাখার পর এদিন হঠাৎ মুখ খুলেছেন তিনি। আর খুললেন তো খুললেন একেবারে নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে কুমন্তব্য দিয়ে। তাঁর দাবি, ‘যাদের দ্বিতীয় স্ত্রী বিদেশী তারাই নোবেল পেয়ে যাচ্ছেন।’ তবে রাহুল বাবুর এহেন মন্তব্যকে পাল্টা দিতে ছাড়ল বামেরা। রাজ্য বিজেপির সিনিয়র এহেন নেতাকে তাঁর মন্তব্যের অশিক্ষিত ‘আকাট’ বলে পাল্টা দিলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী।

লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশজুড়ে সাড়া ফেলা কংগ্রেসের ‘ন্যায়’ প্রকল্প ছিল অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়েরই। এহেন ব্যক্তি নোবেল পাওয়ার পর তাঁর উপর রীতিমতো খাপ্পা বিজেপি নেতারা। তার পর থেকেই শুরু হয়েছে অভিজিৎকে নিয়ে কুমন্তব্য। পীযূষ গোয়েলের পর কটূক্তি তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। তাঁর দাবি, ‘যাদের দ্বিতীয় স্ত্রী বিদেশী তারাই নোবেল পেয়ে যাচ্ছেন। আমি জানি না নোবেল পাওয়ার জন্য এটি দ্বিতীয় কোনও ডিগ্রি কিনা।’ এরপরই পীযূষ গোয়েলের বক্তব্য টেনে এনে তিনি বলেন, ‘অভিজিৎ ইস্যুতে পীযূষ গোয়েলের বক্তব্য সঠিক। অমর্ত্য সেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো মানুষেরা অর্থনীতিকে বামপন্থা রীতিতে চালাতে চায়। কিন্তু বামপন্থা রীতি এরাজ্যে অচল হয়ে গিয়েছে।’

রাহুলের এই মন্তব্যের পর তাঁকে একহাত নিয়ে সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, ‘তিলে তিলে দেশটাকে শেষ করে দিচ্ছে বিজেপি। আর সেটা নিয়ে কেউ বিরোধিতা করলেই তাদের নিয়ে কটূক্তি করা হচ্ছে। পীযূষ বলুন আর রাহুল সিনহা বলুন ওদের কোনও যোগ্যতা আছে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলার। আসলে রাহুল সিনহা হলেন একটি আস্ত আকাট। তাই এই ধরনের মন্তব্য করে চলেছেন। অশিক্ষিত মানুষ ছাড়া এই ধরনের কথা কেউ বলে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here