kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, শিলিগুড়ি: বিপাকে পড়তে চলেছেন সিপিআই(এম)’র রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। কারন হিসাবে উঠে আসছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একাধিকবার কুনকি হাতি বলে আক্রমণের জেরে এবার তাঁর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাবার্তা চিন্তাভাবনা করছে তৃণমূল নেতৃত্ব। কিছুদিন আগেই রাজ্যের ইস্পাতনগরী বলে পরিচিত দুর্গাপুরে বামেদের একটি সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কুনকি হাতি বলে কটাক্ষ করেন সূর্যকান্ত মিশ্র। আবারও সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটালেন তিনি। রবিবার শিলিগুড়িতে একসভাতে ফের মমতাকে কুনকি হাতি বলে কটাক্ষ হানেন সূর্য। দার্জিলিং জেলা তৃণমূল সুত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার পরই বিষয়টি নির্বাচণ কমিশনকে জানানোর পাশাপাশি তৃণমূল সূর্যের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও চিন্তাভাবনা করছে। তবে দলের তরফে এখনও এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

রবিবার শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্কে বামেদের এক নির্বাচনী জনসভার শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন সূর্যকান্ত মিশ্র। সেখানেই সূর্যকান্তবাবু তৃণমূল সুপ্রিমোর প্রতি কটাক্ষ হেনে বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির কুনকি হাতি। তিনি বিজেপির এজেন্ট হয়ে কাজ করছেন।’ রবিবার বিকেলে শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্কে দার্জিলিং ও জলপাইগুড়ি লোকসভা কেন্দ্রের বামফ্রন্ট প্রার্থীদের প্রচারে এক নির্বাচনী জনসভার আয়োজন করে জেলা বামফ্রন্ট। এই নির্বাচনী জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক কমরেড সূর্যকান্ত মিশ্র। এছাড়াও ওই সভাতে উপস্থিত ছিলেন শিলিগুড়ির বাম বিধায়ক তথা মেয়র অশোক ভট্টাচার্য, জেলা সম্পাদক জীবেশ সরকার সহ জেলা বামফ্রন্টের একাধিক নেতৃত্ববৃন্দ।

 

বাঘাযতীন পার্কের ওই সভায় দার্জিলিং ও জলপাইগুড়ি থেকে কয়েকশ মানুষ উপস্থিত ছিল। নির্বাচনী সভা শেষে সূর্যবাবু সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর থার্ড ফ্রন্টের সভায় যোগদান প্রসঙ্গে বলেন, ‘বনদপ্তরের যেমন কুনকি হাতি রয়েছে তেমনই বিজেপির কুনকি হাতি মুখ্যমন্ত্রী। থার্ড ফ্রন্ট থেকে বিজেপি বিরোধী ভোট ভাঙানোর জন্য বিজেপির এজেন্ট হয়ে কাজ করছেন তিনি।’ সূর্যবাবুর এই মন্তব্য ঘিরেই বিতর্ক বাঁধার পাশাপাশি তৃণমূলের তরফে এবার তাঁকে আইনি নোটশ পাঠানোর কথাবার্তা নিয়ে চিন্তাভাবনা চলছে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here