kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুরের করোনা স্পেশ্যাল হাসপাতাল কোভিড ১৯ লেভেল-১ এ সম্ভাব্য সংক্রামকদের স্থানান্তরিত হল বুধবার রাতে। সোমবার মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ দিয়েছিলেন, অবিলম্বে জেনারেল মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে করোনার সম্ভাব্য সংক্রামকদের অন্যত্র নিয়ে চিকিৎসার জন্য পরিকাঠামো গড়ে তোলা হোক।

সেই মতো মেদিনীপুর শহর সংলগ্ন আবাস এলাকায় নবনির্মিত আয়ূষ হাসপাতাল বিল্ডিংয়ে ১০০ শয্যার করোনা হাসপাতাল তৈরি করা হয়েছে। শহরের মোহনপুর এলাকায় বেসরকারি নার্সিংহোমের বিল্ডিং-এ আরও ৫০ শয্যাবিশিষ্ট আরও একটি অনুরূপ হাসপাতাল রয়েছে। দু’দিনের মধ্যে জরুরি ভিত্তিতে সমস্ত পরিকাঠামো গড়ে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা ১৪ জন সম্ভাব্য সংক্রামককে স্থানান্তরিত করা হল বুধবার রাতে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন, এরপর থেকে এই সংক্রান্ত রোগীদের আয়ুষ স্পেশ্যাল হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা করা হবে।

এর ফলে সাধারণ চিকিৎসার জন্য মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অন্যান্য রোগীদের ক্ষেত্রেও যেমন খানিকটা স্বস্তির, তেমনই স্বাভাবিক ছন্দে কাজ করতে পারবেন চিকিৎসকরাও। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতে বুধবার রাত পর্যন্ত ১৯৭৬২ জন রোগীকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে৷ ২২৬৮ জন কোয়ারেন্টিন থেকে মুক্তি পেয়েছেন৷ দাসপুরের এক যুবকের করোনা পজেটিভ ধরা পড়েছে৷ ওই যুবকের পুরো গ্রামকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে৷ সেই সঙ্গে ওই যুবকের প্রথমিক পর্বে চিকিৎসা করা ঘাটাল হাসপাতালের দুই চিকিৎসক কোয়ারেন্টিনে গিয়েছেন৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here