নিজস্ব প্রতিবেদক, বারুইপুর: গাড়ির ভেতরেই বাজছিল ফোন৷ ভেতর থেকে গাড়ির দরজা খোলাই ছিল৷ ফোন রিসিভ করতেই জানা গেল গাড়িটি শোভাবাজারের৷ তবে যে বিষয়টি চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে তা হল ক্যাবটি ছিল রক্তমাখা৷ শনিবার সাত সকালে ভাঙড়ের বাগজোলা খালের কৃষ্ণমাটি ব্রিজ লাগোয়া একটি নির্জন এলাকায় পরিত্যক্ত রক্তাক্ত একটি ক্যাব ঘিরে এভাবেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে এলাকায়। খোঁজ পাওয়া যায়নি গাড়ি চালকের৷ ঘটনার তদন্তে কাশিপুর থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, শনিবার সাত সকালে ভাঙড়ের কাশিপুর থানার বাগজোলা খাল পাড়ের কৃষ্ণমাটি ব্রিজ লাগোয়া  এলাকায ঝোপের মধ্যে একটি পরিত্যক্ত গাড়িতে মোবাইল ফোন বাজতে শোনে এলাকাবাসী। গাড়ির সিটে চাপ চাপ রক্ত ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেখে বাসিন্দাদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়ায়। বাসিন্দারা খবর দেয় কাশিপুর থানায়। সূত্রের খবর, শুক্রবার বিকেলে শোভাবাজার থেকে নিউটাউন সাপুরজি যাওয়ার জন্য এই এসি ট্যাক্সিটি ভাড়া করে এক যুবক। গাড়ির চালকের নাম বাবলু সিং। তার বাড়ি শোভাবাজারে।

 

সন্ধ্যাবেলায় গাড়িটি সাপুরজি আসে। তারপর গাড়িটি ভাঙড়ের বাগজোলা খালপাড়ের রাস্তায় পৌঁছায়। শনিবার সকালে গাড়ির মধ্যে মোবাইল ফোন বাজতে দেখে স্থানীয়রা৷ ফোনটি ধরে জানতে পারে গাড়িটি শোভাবাজারের। গাড়ির মধ্যে চাপ চাপ রক্ত দেখা গিয়েছে। একটা বস্তায় জড়ানো ইট পাওয়া গিয়েছে। মিলেছে মদের বোতল, গুটখা, চিপসের প্যাকেট। গাড়ির চালক বাবলু সিংয়ের খোঁজ না পাওয়া যাওয়ায় ক্রমশ রহস্য দানা বাঁধছে। বাবলু সিংকে নির্জন জায়গায় নিয়ে এসে মেরে ফেলা হয়েছে, এমনটাই দাবি বাবলুর পরিবারের। ঘটনার তদন্তে কাশিপুর থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here