নিজস্ব প্রতিবেদক, মালদা: এখন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম সেরা সম্পদ৷ যেখানেই হাত ছোঁয়াচ্ছেন ফলসে সোনা৷ দলনেত্রীর বিশ্বস্ত সৈনিক শুভেন্দু অধিকারী পঞ্চায়েত নির্বাচনে অধীর গড় বলে পরিচিত মুর্শিদাবাদ কিংবা পাশের জেলায় গনি মিথ ভেঙে ঘাসফুল ফুটিয়েছেন৷ কংগ্রেসের হাত ছেড়ে একের পর এক তাবড় কংগ্রেসী নেতাকর্মী এসেছে তৃণমূল শিবিরে৷ যার কারিগড় শুভেন্দু অধিকারী৷ কংগ্রেসকে সাইন বোর্ড করে দেওয়ার পর শুভেন্দুর পরবর্তী লক্ষ্য বিজেপি৷ এদিন মালদায় প্রকাশ্য জনসভা থেকে পরিবহনমন্ত্রী বলেন, ‘মালদা-মুর্শিদাবাদের কংগ্রেসকে ভেঙেছি। এবার টার্গেট বিজেপি। মালদায় বিজেপি কিছু জিতেছে, কিন্তু তারা একটাও গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করতে পারবে না৷ সবাই তৃণমূলে আসবে। হবিবপুরে বিজেপি কিছু আসন পেয়েছে। তাদের মধ্যে পাঁচজন এই মঞ্চেই আছে। জেলার সবকটি গ্রাম পঞ্চায়েত্ ,পঞ্চায়েত্ সমিতি তৃনমূলই গঠন করবে।’

বুধবার মালদা শহরে ২১ জুলাইয়ের শহিদ দিবসের প্রস্তুতি উপলক্ষ্যে একটি জনসভায় বৃন্দাবনী ময়দানে প্রস্তুতি সভায় যোগ দিতে এসে বিজেপিকে ‘ফিনিশ’করার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি আরও বলেন, ‘কয়েকদিন আগে আমি মালদা জেলায় এসে বলেছিলাম কংগ্রেসের প্রথম সারির মালদার দুই জনপ্রতিনিধি তৃণমূলে আসবে। তাঁদের তৃণমূলে যোগদান এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা৷’ তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে আবু হাসেম খান চৌধুরির নাম না করে বলেন, ‘এখানকার একজন কংগ্রেস নেতাকে আগে যখনসাংবাদিকরা সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, তখন তিনি সাংবাদিকদের মারতে দৌড়ালেন। পরবর্তীতে তিনিই আবার কলকাতায় আমাদের মহাসচিবের বাড়ি গিয়েছিলেন । আমি নাম করছি না ,তবে আপনারা সবই টিভিতে দেখেছেন। আমি আবার বলছি কংগ্রেসের প্রথম সারির জনপ্রতিনিধিরা তৃণমূলে আসবে। সব তৃণমূল হবে। বিজেপি একটিও পঞ্চায়েত গঠন করতে পারবে না। সব গ্রাম পঞ্চায়েত তৃণমূলের হবে।’

সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে শুভেন্দুবাবু বলেন, একুশে জুলাই দুজন কংগ্রেস বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দেবে। শুভেন্দু অধিকারী ওই দুই কংগ্রেস বিধায়কের নাম না করলেও, তাঁরা যে সাবিনা ইয়াসমিন ও সমর মুখার্জ্জী সে কথা জেলার রাজনৈতিক মহলে মোটামুটি স্পষ্ট। তবে ডালু বা মৌসম এখনই যোগ দিচ্ছেন কিনা তা নিয়ে কিন্তু ধোঁয়াশা রয়েই গেল। কোনও কংগ্রেস সাংসদ তৃণমূলে যোগ দেবে কিনা, এ নিয়ে প্রশ্ন করলে পরিবহনমন্ত্রী বলেন ‘অপেক্ষা করুন৷ সময় মত সব দেখতে পাবেন’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here