kolkata news
Parul

মহানগর ডেস্ক: “এই সরকার ক্যাগ রিপোর্ট বিধানসভায় ‘টেবিল’ করেনি,হাইকোর্টের আদেশ সত্বেও ক্যাগ নিয়ে পদক্ষেপ নেয়নি। আসলে এই সরকার চায়না তাদের সরকারি খরচের কেউ কোনো হিসাব রাখুক। এটাই ওদের সিস্টেম”। মুকুল রায়ের পিএসির চেয়ার ম্যান পদে মনোনীত হওয়ার প্রসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকের এভাবেই তৃণমূল ও মমতা সরকারকে আক্রমণ করলেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

ads

এদিন পিএসি চেয়ারম্যান হিসেবে মুকুল রায়ের নাম প্রস্তাবিত হওয়ার সাথে সাথে সভাকক্ষ পরিত্যাগ করেন বিজেপি বিধায়করা। আর তারপরই সাংবাদিক বৈঠক করেন শুভেন্দু।

তাঁর অভিযোগ, “দেশের লোকসভা তথা প্রতিটা রাজ্যের বিধানসভাতেই প্রথা আছে পাবলিক একাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে বিরোধী দলের কাউকে করা। সেই কারণেই একাউন্টস কমিটিতে আমরা ৬ জনের নাম প্রস্তাব করেছিলাম ৭ জনের নয়। ৭ জনের হলেই নির্বাচন হত। কিন্তু অধ্যক্ষ মুকুল রায়ের নাম প্রস্তাব করেছেন।”

২০১৬ সালে মানস ভূঁইঞার ওই একই কমিটিতে মনোনয়নের প্রসঙ্গও তোলেন তিনি।তিনি বলেন, “তাঁকে নিয়েও দল বদল আইনে মামলা করে বাম কংগ্রেস। ২২ বার তা নিয়ে শুনানি হওয়ার পরেও কোনো ফল হয়নি। আমি শুধু এটুকু বলতে চাই বিজেপি এতদিন অপেক্ষা করবেনা।”

সাংবাদিক বৈঠকে সরকারের বিভিন্ন কমিটিতে সজনপোষন করে সভাপতি নিয়োগ করা হচ্ছে। অঞ্জন বন্দোপাধ্যায়ের স্ত্রীর নিয়োগকেও কটাক্ষ করেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, “অঞ্জন বাবু ভালো কাজ করেছেন। কিন্তু তাতে যদি তাঁর স্ত্রীকে কাজ দেওয়া হয় তাহলে সরকারি দপ্তরে ১৭০০০ নিয়োগ হয়নি কেন। এটা কি তাদের প্ৰতি বঞ্চনা নয়?” তবে তাকে একই ঘটনায় তৃণমূলে থাকাকালীন প্রতিবাদ না করা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি তা এড়িয়ে যান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here