চতুর্থ বর্ষপূর্তিতে পুরুলিয়ার বুকে ‘এসভিএফ সিনেমাজ’-এর অভিনব পদক্ষেপ

0
33

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জেলায় জেলায় সিনেমাহল খুলে এলাকার মানুষদের কাছে বাংলা সিনেমাকে আরও বেশি করে পৌছানোর উদ্যোগ নেই পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম বড় প্রযোজনা সংস্থা এস ভি এফ। সেই মতো আজ থেকে ঠিক চার বছর আগে পুরুলিয়া জেলাতে এস ভি এফ খোলে একটি সিনেমাহল। আজ সেটি চার বছরে পদার্পণ করেছে। সেই উপলক্ষ্যেই হোমের ছেলে মেয়েদের দিয়ে কেক কেটে সিনেমা হলের জন্মদিন পালন করল কর্তৃপক্ষ। আজ পুরুলিয়া এস ভি এফ সিনেমা হল চার বছরে পদার্পণ করেছে। প্রতি বছর এই দিনে তাঁরা হোমের ছেলে মেয়েদের দিয়ে জন্মদিনের কেক কেটে সিনেমা হলের জন্মদিন পালন করেন। এ বছরও তার অন্যথা হয়নি। পুরুলিয়ার একটি সরকারি হোম এবং একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হোমের ১২০ জন ছেলে মেয়েদের দিয়ে চার বছরের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেক কেটে জন্মদিন পালন করে সিনেমাহল কর্তৃপক্ষ।

কেক টিফিন খেতে খেতে মহানন্দে হোমের বাচ্চাদের বিনামূল্যে “অ্যাডভেঞ্চার অফ জোজো “দেখানো হয়েছে। চার দেওয়ালের মধ্যে থেকে ক্ষণিকের জন্য বাইরে বেরিয়ে আর পাঁচজনের মতো মাল্টিপ্লেক্সে বসে সিনেমা দেখতে পেয়ে খুশি বাচ্চারা। এই বিষয়ে আনন্দমঠের সুপার হৈমন্তী হেমব্রম জানান, ”বাচ্চারা সেভাবে বাইরে বেরোতে পারে না। তাই তারা বাইরে বাজারে এসে মাল্টিপ্লেক্সের মতো জায়গায় সিনেমা দেখতে পেয়ে খুশি। দীর্ঘদিন ধরে ঘেরাটোপে থেকে তারা যখন এই সিনেমা হল কর্তৃপক্ষের সিনেমা দেখার আমন্ত্রণ পেলো তখন বাচ্চারা আনন্দে রাতে ঘুমায়নি। কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে বাচ্চারা সত্যিই আনন্দিত। আর বাচ্চারা এই আনন্দ পেয়ে আমিও খুশি। সিনেমা হল কর্তৃপক্ষকে তাই ধন্যবাদ জানাই।”

এদিনের এই বিশেষ অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে এস ভি এফ পুরুলিয়ার ম্যানেজার পার্থ ব্যানার্জি বলেন, ”প্রতিবছরই হোমের ছোট ছেলে মেয়েদের দিয়ে সিনেমাহলের জম্নদিন পালন করে থাকি। কারণ এই সমস্ত ছেলে মেয়েরা বাইরে এসে সিনেমা দেখার সুযোগ পায় না। তাই তাদের নিয়ে এসে সিনেমা হলে জন্মদিন পালন করে তাদেরকে বিনামূল্যে সিনেমা দেখানোর ব্যবস্থা করে থাকি। হোমের ছেলেমেয়েদের এর আনন্দ দিতে পেরে আমরা গর্বিত।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here